নেইমারের জোড়া গোলে বার্সেলোনার বড় জয়

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬ at ৮:৪৮ পূর্বাহ্ণ

চোটের কারণে তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন লিওনেল মেসি। দলের প্রধান অস্ত্রের অভাব অবশ্য এতটুকু অনুভব করতে দেননি নেইমার-সুয়ারেসরা। তাদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে যে স্পোর্তিং গিহনকে তাদেরই মাঠে বিধ্বস্ত করেছে বার্সেলোনা। নেইমারের দুই গোলের সঙ্গে সুয়ারেস, রাফিনহা আলকান্তারা ও আরদা তুরান একবার করে লক্ষ্যভেদ করলে ৫-০ গোলের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কাতালান ক্লাবটি।

 

শুরু থেকেই গিহনের রক্ষণে ঝড় তোলে বার্সেলোনা। গোল পেতে অবশ্য অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে ২৯ মিনিট পর্যন্ত, যখন দুর্দান্ত এক গোলে কাতালানদের এগিয়ে নেন সুয়ারেস। মাঝ মাঠ থেকে আরদা তুরানের বাড়ানো পাস ধরে সামনে এগিয়ে আসা স্বাগতিক গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল জালে জড়ান উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। মিনিট খানেক পর আবারও আনন্দের ঢেউ উঠে বার্সেলোনার গ্যালারিতে। এবার লক্ষ্যভেদ করেন রাফিনহা। মেসির জায়গায় খেলতে নামা এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার সের্হি রবার্তোর ক্রস থেকে পান গোলের দেখা।

 

দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেছিল বার্সেলোনা, যদিও সেগুলো কাজে লাগাতে পারেনি তারা। একের পর এক আক্রমণে কাঁপিয়ে দিচ্ছিল প্রতিপক্ষের রক্ষণ। এমনই একটি আক্রমণে বাধা দিতে গিয়ে আলবার্তো রামোস ফাউল করে বসেন রবার্তোকে, তাতে দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের সঙ্গে লাল কার্ড দেখে তাকে ছাড়তে হয় মাঠ। ১০ জনের গিহনের বিপক্ষে আরও আক্রমণাত্মক হয় বার্সেলোনা। সুযোগটা কাজে লাগিয়েছে তারা শেষ ৭ মিনিটে। এই সময়টাতেই যে ৩ গোল যোগ করে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। ৮১ মিনিটে প্রথমবার জাল খুুঁজে পান নেইমার। রবার্তোর ক্রস পাকো আলকাসের গোলমুখে শট করলেও বারে লেগে আসে ফিরে, সামনে থাকা নেইমার অবশ্য ফিরতি বল জালে জড়াতে করেননি ভুল। মিনিট চারেক পর স্কোরশিটে নাম তোলেন তুরান। আবারও সেই রবার্তোর ক্রস বক্সের ভেতর থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন টারকিশ অধিনায়ক। আর ৮৮ মিনিটে নেইমার দ্বিতীয়বার জাল খুুঁজে পেলে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

 

লা লিগায় জয় পেয়েছে অ্যাথলেতিক বিলবাও। ঘরের মাঠে তারা সেভিয়াকে হারিয়েছে ৩-১ গোলে। এইবারও ঘরের মাঠে ২-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল সোসিয়েদাদকে।

এ সম্পর্কিত আরও