Mountain View

বিপিএলের চতুর্থ আসরে দেশী শীর্ষ খেলোয়াড়দের ভিত্তিমূল্য

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৬ at ৯:৪৮ অপরাহ্ণ

20160926212653বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর শুরু হবে ৪ নভেম্বর থেকে। এর আগেরআসরে দেশী আইকন ক্রিকেটারদের থেকে বিদেশী ক্রিকেটাররা অনেক বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন। তবে কিছুদিন আগে এবারের আসরে দেশি ও বিদেশি খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকের ব্যবধান কমিয়ে আনার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলো বিসিবি। সেই সূত্র মতোই এগুচ্ছে এবারের আসর।

৩০ সেপ্টেম্বর বিপিএলের আসন্ন এই আসরের নিলাম হবে। ইতিমধ্যে শীর্ষ খেলোয়াড়দের ফ্লোর প্রাইসের ড্রাফট করা হয়েছে। আগের আসরে সব আইকন খেলোয়াড়ের ভিত্তি মূল্য একইছিলো। তবে এই আসরে ক্রিকেটারদের মান অনুযায়ী ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে সাত দলের জন্য সাতজনকে আইকন করা হয়েছে। সেখানে সবার থেকে বেশি ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় স্টার সাকিব আলহাসানের। এরপর একই রকম ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাশরাফি, মুশফিক, তামিম, রিয়াদের। আইকন খেলোয়াড়দের তালিকায় নিচের দিকে আছেন সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার।
অন্যদিকে এবার আইকন হিসেবে থাকছেন না নাসির হোসেন।

বিপিএলের চতুর্থ আসরে দেশী শীর্ষ খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্যের ক্রম- সাকিব আল হাসান (৫৫ লাখ), মুশফিকুর রহিম (৫০ লাখ), তামিম ইকবাল (৫০ লাখ), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৫০ লাখ), মাশরাফি বিন মুর্তজা (৫০ লাখ), সাব্বির রহমান (৪০ লাখ) ও সৌম্যসরকার (৪০ লাখ)

অন্যদিকে আইকন খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্য বাড়ানো হলেও অন্য ক্যাটাগরিতে তা কমানো হয়েছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের এই আসরে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ১১ জন খেলোয়াড়কে রাখা হয়েছে। যাদের ভিত্তি মূল্য করা হয়েছে ২৫ লাখ (আগের আসরে যা ছিলো ২৮ লাখ টাকা)। ‘বি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ৩৫ জন, তাদের ভিত্তি মূল্য ১৮ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিলো ২২লাখ টাকা)। ‘সি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ৫২ জন, তাদের ভিত্তি মূল্য ১২ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিল ১৫ লাখ টাকা)। ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ২৮ জন খেলোয়াড়, তাদের ভিত্তি মূল্যনির্ধারণ করা হয়েছে পাঁচ লাখ টাকা।ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হলেও হলেও প্রাথমিকভাবে আইকন খেলোয়াড়দের দলে অন্তর্ভূক্তির ক্ষেত্রে তিনটি পদ্ধতি নিয়ে বিবেচনা করা হয়েছিল। এগুলো হলো- (ক) আইকন খেলোয়াড়রা নিজেরাই নিজের দল বেছে নেবেন (খ) ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো নিজেদের প্রয়োজন অনুসারে সমঝোতার ভিত্তিতে বেছে নেবে আইকন খেলোয়াড় অথবা (গ) বিসিবি এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে।কিন্তু অবশেষে লটারির মাধ্যমেই আইকন নির্বাচনের দিকে এগিয়েছে বিপিএল-এর গভর্নিং কাউন্সিল। কিছুদিন আগে এবারের আসরে আইকন খেলোয়াড় থাকবে না বলে জানানো হয়েছিলো। তবে আবার পরিবর্তন করে এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর পর আর কোনো পরিবর্তন হবে না বলে জানিয়েছেন বিপিএলের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা।তিনি বলেছেন, ”বিপিএল-এর আইকন খেলোয়াড়দের দল লটারির মাধ্যমেই চূড়ান্ত হবে। সাত আইকন খেলোয়াড়কে পাবে সাতটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। এখানে আর কোনও পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।”বিপিএলের গত আসরে ছয় দল থাকলেও এবার থাকছে সাতদল। গত আসর থেকে বাদ পড়েছে সিলেট অন্যদিকে যুক্ত হয়েছে খুলনা ও রাজশাহী। কিছুদিন আগে জানানো হয়েছিলো, আগের আসরে যেপাঁচ দল এবারের আসরেও আছে তারা গতবারের স্কোয়াড থেকে দুইজন খেলোয়াড়কে রেখে দিতে পারবে, তবে কেউ আইকন খেলোয়াড় রাখতে পারবে কি না সেই ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয় নি।উল্লেখ্য, ৪ নভেম্বর শুরু হয়ে ডাবল লিগ পদ্ধতিতে চলবে এই টুর্নামেন্ট। ডিসেম্বরের৭ বা ৮ তারিখ বিপিএল সমাপ্ত হবার কথা রয়েছে। এবারের আসর হবে ঢাকা ও চট্টগ্রামে।

এ সম্পর্কিত আরও