ঢাকাঃ রবিবার , ২২ অক্টোবর ২০১৭ ৫:৪৮ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বড়লেখায় প্রধাণ শিক্ষকের উপর হামলা বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা

বড়লেখায় প্রধাণ শিক্ষকের উপর হামলা বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা

প্রকাশিত :

fb_img_14752260902515291
ইমন খান, বিডিটোয়েন্টিফোরটাইমস : মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগ এনসিএম হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহীদুল ইসলামকে বুধবার মারধরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার দু’গ্রুপ ছাত্রের মধ্যে চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। এতে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ছাত্ররা ক্লাস বর্জন করে সংঘর্ষে লিপ্ত হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে তিন দিন স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছেন।

সরেজমিনে ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ সেপ্টেম্বর উপজেলার দক্ষিণভাগ এনসিএম হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। নিয়োগ বোর্ডের সচিবের দায়িত্ব পালন করেন স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক আকবর আলী। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহীদুল ইসলাম নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে অকৃতকার্য হন। মঙ্গলবার স্কুলের অফিস সহকারিকে নিয়ে সচিব আকবর আলী নিয়োগের কাজ চালাতে গেলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহীদুল ইসলাম জোরপূর্বক নিয়োগের ফলাফল সিটসহ জরুরী কাগজপত্র কেড়ে নেন এবং তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

এ ঘটনা জানার পর স্কুলের শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ জনতা বিক্ষুব্দ হয়ে উঠেন। বুধবার দুপুর দু’টায় ১০-১২জন শিক্ষার্থী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের কাছে তাদের প্রিয় শিক্ষক আকবর আলীকে শারীরিক লাঞ্ছিতের বিষয়ে জানতে গেলে তিনি দরজা বন্ধ করে তাদেরকে মারধর করেন।

এ ঘটনার পর খবর পেয়ে ছাত্র, অভিভাবক ও স্থানীয় জনতার মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। বিক্ষুব্ধরা শাহীদুল ইসলামের অফিস কক্ষে ঢুকে তাকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে অবরুদ্ধ রাখে। প্রায় দুইঘন্টা অবরুদ্ধ থাকার পর পুলিশ প্রহরায় শাহীদুল ইসলামকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে স্কুল শুরুর পূর্বে স্কুলের জৈনক দুই শিক্ষককের উস্কানিতে কতিপয় শিক্ষার্থী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহীদুল ইসলামকে মারধরের ঘটনার বিচারের দাবিতে ক্লাসে যোগ না দিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। এসময় তারা কুলাউড়া-বড়লেখা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে স্কুলের দুই গ্রুপ শিক্ষার্থীর মধ্যে চরম
উত্তেজনা দেখা দেয়। খবর পেয়ে ইউএনও এসএম আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর কান্তি দেব, থানার
ওসি মোহাম্মদ সহিদুর রহমানসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ইউএনও’র পরামর্শে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আগামী তিন কর্মদিবস স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেন।

বড়লেখা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর কান্তি দেব জানান, স্কুলের চলমান উত্তেজনা নিরসণের লক্ষ্যে আগামী তিন দিন স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে মানিকগঞ্জে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

এম আজাদ হোসেন মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: সাবধানে চালাবো গাড়ি, নিরাপদে ফিরবো বাড়ি এই প্রতিপাদ্যে -মানিকগঞ্জে নানা …

Leave a Reply