Mountain View

রাজনীতি’তে নিষিদ্ব হচ্ছেন তারেক রহমান !

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৬ at ৩:২৪ অপরাহ্ণ

fb_img_14752268326309125
জোবায়ের তুহিন
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপির) সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান কে সরকার শিগগিরই নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ।ইতিমধ্যে সরকার তাকে একটি মামলায় ৭ বছর কারাদন্ড দিয়েছে । সরকার চাচ্ছে তারেক রহমান কে বিভিন্ন মামলায় সাজা দিয়ে বিএনপি কে রাজনীতি’তে কোনঠাসা করতে ।বিএনপি ও সেভাবে রাজপথে আন্দোলন কিংবা বড় ধরণের প্রতিবাদ সমাবেশ-বিক্ষোভ মিছিল গড়ে তুলতে পারে নি ।বিএনপির অন্য সংগঠন গুলো দায়সারা ভাবে কর্মসূচি দিয়ে শুধুমাত্র দায়িত্ব সেরেছে ।শুধুমাত্র ছাত্রদল ধারাবাহিক ভাবে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ মিছিল করে গেছে ।তাই সরকার চাচ্ছে এই সুযোগে বিএনপি কে বিপাকে পেলে তারেক কে নিষিদ্ধ করতে ।রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ দুইজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। গতকাল এই মামলার অভিযোগপত্র (চার্জশিট) গ্রহণ করে তারেক রহমান ও সাংবাদিক মাহাথীর ফারুকীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী। ২০১৫ সালে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল
থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় তারেক রহমান ছাড়াও একুশে টেলিভিশনের তৎকালীন চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম এবং সাংবাদিক কনক সারোয়ার ও মাহাথীর ফারুকীকে আসামি করা হয়েছে। গত বছরের ৮ই জানুয়ারি এ মামলা দায়ের করা হয়। গত ৬ই সেপ্টেম্বর এ মামলার অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হয়। তারেক রহমানের বিরুদ্ধে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলাসহ আরো কয়েকটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। মানি লন্ডারিংয়ের একটি মামলায় নিম্ন আদালত থেকে খালাস পেলেও উচ্চ
আদালত ইতিমধ্যে তাকে ৭ বছরের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছে। তারেক কে সাজা প্রসঙ্গে বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বিডি২৪টাইমস কে বলেন,সরকার তারেক কে যতই নোংরা খেলা করুক বাংলাদেশের রাজনীতিতে তারেক রহমান কে নিষিদ্ধের চেষ্টা সফল হবে না ।বাংলার মানুষ তারেক রহমান কে বীরের বেশে ফিরিয়ে আনবে ।

এ সম্পর্কিত আরও