Mountain View

ব্রহ্মপুত্রের পানি বন্ধ করল চীন,বড় ধরনের পানি সঙ্কটে ভারত

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২, ২০১৬ at ৮:৩৭ অপরাহ্ণ

913

চীন থেকে ভারতে আসা ব্রহ্মপুত্র নদের পানি প্রবাহ বন্ধ করে দিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ। চীনের অন্যতম ব্যয়বহুল একটি ড্যাম নির্মাণের জন্যই এই নদীটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটি। এতে ভারতে বড় ধরনের পানি সঙ্কট দেখা দেয়ার আশঙ্কায় পড়েছে ভারতীয় প্রশাসন। এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বাংলাদেশেও।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সিনহুয়া শনিবার জানায়, ব্রহ্মপুত্র নদটি চীনের তিব্বত থেকে উৎপন্ন হয়ে ভারতে এসেছে। অরুণাচল প্রদেশ হয়ে এই নদের প্রবাহ ভারতে ঢুকেছে। এই নদের ওপরেই ৪ দশমিক ৯৫ বিলিয়ন ইয়েন ব্যয়ে ‘লালহো ড্যাম’ নির্মাণ করতে যাচ্ছে চীন। এদিকে ব্রহ্মপুত্রের প্রবাহ বন্ধ করে দেয়ায় উদ্বেগে পড়েছে ভারত। ব্রহ্মপুত্র বাংলাদেশে ঢুকেছে যমুনা নামে।
চীনের লালাহো প্রকল্পের প্রধান ঝাং ইয়ানবাও একে ‘সবচেয়ে ব্যয়বহুল প্রকল্প’ বলে উল্লেখ করে জানান, ২০১৪ সালের জুনে শুরু হওয়া তাদের এই প্রকল্পটি ২০১৯ সাল নাগাদ শেষ হবে। এই নদ বন্ধ করে দেয়ার প্রভাব কী পরিমাণ হবে তা এখানো নিশ্চিত না হওয়া গেলেও ভারত এবং বাংলাদেশ- এই দুই দেশের এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বলে জানায় ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

গত বছর চীন এই ব্রহ্মপুত্রের ওপরেই ১ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ে পানি-ভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র করেছে। চীনের ওই প্রকল্প নিয়েও উদ্বেগ জানিয়ে আসছে ভারত। চীন ভারতের উদ্বেগ বিবেচনায় নিয়েছে জানিয়ে বলেছে, তাদের প্রকল্পের উদ্দেশ্য ব্রহ্মপুত্রের পানি আটকে রাখা নয়।

চীনের ১২তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার আওতায় ব্রহ্মপুত্রের ওপর আরো তিনটি পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্র করবে দেশটি। চলতি বছরের মার্চে ভারতের কেন্দ্রিয় পানি সম্পদমন্ত্রী সানওয়ার লাল জাঠ এক বিবৃতিতে চীনের কাছে ভারতের উদ্বেগের কথা জানায়। ভারত এবং চীনের মধ্যে কোনো পানি চুক্তি নেই। তবে ২০১৩ সালে দেশ দুটি এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে।
প্রসঙ্গত, ভারত-অধিকৃত উরিতে হামলার পর থেকে পাকিস্তানের সঙ্গে উত্তেজনা যাচ্ছে ভারতের। এর আগে চীন থেকে ভারত হয়ে পাকিস্তানে আসা সিন্ধু নদীর পানি বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছিল ভারত। রক্ত এবং পানি একসঙ্গে প্রবাহিত হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছিলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এর প্রতিক্রিয়ায় পাক-প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র উপদেষ্টা সার্তাজ আজিজ জানিয়েছিলেন, সিন্ধুর পানি প্রবাহকে বন্ধ করে দেয়াকে ‘যুদ্ধ’ হিসেবে বিবেচনা করবে পাকিস্তান। সিন্ধুর পানি প্রবাহ বন্ধ করলে আরো অনেকে নদীর পানি প্রবাহ বন্ধের সুযোগ পাবে বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি। উদাহরণ হিসেবে সার্তাজ আজিজ বলেন, ‘চীন ব্রহ্মপুত্রের পানি বন্ধ করে দিতে পারে।’
উল্লেখ্য, ভারতে পানি সঙ্কট চরম। প্রতি বছর গ্রীষ্ম মৌসুমে হাজারো লোক মারা যায় পানির অভাবে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর পানি নিয়ে ভারতে বড় ধরনের দাঙ্গা হয়েছে। কর্নাটকের কাবেরি নদীর কিছু পানি তামিলনাড়ু রাজ্যকে ছেড়ে দিতে কর্নাটক রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেয় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এতে শুরু হয় দাঙ্গা। সহিংসতায় নিহত হয় ২ জন। জ্বালিয়ে দেয়া হয় অসংখ্য গাড়ি, বন্ধ হয়ে আছে স্কুল-কলেজ।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View