অগ্নিঝড়া বোলিং করে ফতুল্লা স্টেডিয়াম কাঁপাচ্ছেন এবাদত

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ৪, ২০১৬ at ৬:১৩ অপরাহ্ণ

aea0b7bf392f9781bff766d87fcb1232x480x320x18

স্পোর্টস ডেস্ক: আল-আমিন হোসেন জাতীয় দলের পরীক্ষিত ফাস্ট বোলার। ঘরোয়া ক্রিকেটে যথেষ্ট নাম করেছেন তরুণ ফাস্ট বোলার কামরুল ইসলাম রাব্বি। ইংল্যান্ডের দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যান জ্যাসন রয় ও জেমস ভিন্স এমন মার শুরু করলেন যে তাদের বদলাতে হলো।
এই দুইয়ের মধ্যে স্বীকৃত বিপদ রয়কেই নিজের প্রথম ওভারে তুলে নিয়েছেন ‘স্পিডস্টার’ এবাদত হোসেন চৌধুরী। ফতুল্লায় ইমরুল কায়েসের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৯ উইকেটে ৩০৯ রান তোলে বিসিবি একাদশ। বড় টার্গেটের পেছনে ছুটে ঝড় তোলার পর ৮.৪ ওভারে দলীয় ৭২ রানে প্রথম উইকেট হারিয়েছে ইংল্যান্ড। ২২ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় রয় করে গেছেন ২৮ রান।
বিপদ বাড়িয়ে
চলা অন্য ওপেনার জেমস ভিন্সকে (৩৯ বলে ৪৮, ৮টি বাউন্ডারি) এবাদতই শিকার করেছেন তার তৃতীয় ওভারে। এই রিপোর্ট লেখার সময় ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ১৪ ওভারে ২ উইকেটে ১০৭ রান।
‘এবাদত’ নামটা দেশের ক্রিকেট অঙ্গণে খুব পরিচিত হয় তো না। কিন্তু এই বোলার কিন্তু বছরের গোড়ায় জিতেছেন ‘পেসার হান্ট’ প্রতিযোগিতা। তার মানে দেশের তরুণদের মধ্যে সবচেয়ে গতিময় বোলার হিসেবে স্বীকৃত তিনি। বয়স ২২। সিলেটের ছেলে তিনি।
মাত্র একটি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ তার প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। কিছুদিন আগে খণ্ড কালিন কোচ হয়ে আসা পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার আকিব জাভেদ এবাদতকে ফুল মার্কস দিয়ে গিয়েছিলেন।
চেঞ্জ বলে আলী আহমেদ মানিক এই ম্যাচে এবাদতের পার্টনার। ১৯ বছরের মানিককে বাংলাদেশের বোলিং কোচ কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালশ নেটে দেখে পছন্দ করেছেন। ওয়ালশের অনুরোধেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এই ম্যাচে বিসিবি একাদশে রাখা হয়েছে এই ৬ ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতার ডান হাতি পেসারকে।
শুরুতে ভালোই বল করছিলেন তিনি। গোপালগঞ্জের মানিকেরও একটি মাত্র ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। এর আগে ৮১ বলে ১১টি চার ও ৬টি ছক্কায় ১২১ রান করেছেন ইমরুল। ৫১ রান এসেছে মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে। ৪৬ রান করেছেন বিসিবি একাদশের অধিনায়ক নাসির হোসেন।

এ সম্পর্কিত আরও