Mountain View

বাংলাদেশকে সমীহ করছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক বাটলার

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ৪, ২০১৬ at ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ

20161004075958

ইংল্যান্ডের ওয়ানডে অধিনায়ক জস বাটলার মনে করেন, বাংলাদেশ এখন খুবই ভালো ক্রিকেট খেলছে। এই মুহূর্তে ওয়ানডে ফরম্যাটে সবচেয়ে আত্মবিশ্বাসী দলটির নাম বাংলাদেশ। এ জন্য মোটেও ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটি হালকাভাবে নিচ্ছেন না তিনি।
৩০ সেপ্টেম্বর অনেক কড়া নিরাপত্তায় ইংল্যান্ড দল ঢাকায় এসেছে। বাটলার গতকাল সংবাদ সম্মেলনে জানান, সিরিজটি হচ্ছে এ জন্য তিনিও স্বস্তিবোধ করছেন। আর একবার সিরিজ শুরু হয়ে গেলে প্রাণবন্ত আনন্দ ফিরে আসবে।
হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসী হামলার পর ইংল্যান্ডের বাংলাদেশ সফর অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। তবে ইংল্যান্ড পরবর্তীতে নিরাপত্তার আশ্বাস পাওয়ায় বাংলাদেশে খেলতে আসে। যদিও নিয়মিত ওয়ানডে অধিনায়ক এউইন মরগ্যান ও ওপেনার অ্যালেক্স হেলস আসেননি। মরগ্যান না থাকায় বাংলাদেশে ইংল্যান্ডের ওয়ানডে দলকে নেতৃত্ব দেবেন বাটলার।
গতকাল মিরপুরে অনুশীলন করেছে ইংল্যান্ডের দলটি। আগামী ৭ অক্টোবর মিরপুরে রয়েছে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচটি। ইংল্যান্ড ৩টি ওয়ানডে ছাড়াও ২টি টেস্ট খেলবে।
বাটলার সংবাদ সম্মেলনে বেশ ইতিবাচক ছিলেন। তিনি বলেন, আমরা যখনই কোনো সিরিজ খেলতে উপমহাদেশে আসি তখন এমন নিরাপত্তা থাকে। আমরা এটাকে ভালো চোখেই দেখি। আমার কথা হচ্ছে সফর ঠিকমতো হলেই হলো। আমরা এখন খেলতে এসেছি। অনুশীলনও শুরু করেছি। ক্রিকেট নিয়ে চিন্তা করছি। আশা করছি বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ সিরিজ হবে।
বাটলার এমন নিরাপত্তা নিয়ে অস্বস্তিবোধ করছেন না। তিনি বলেন, যখন ক্রিকেট শুরু হবে তখন এসব ব্যাপার পেছনে চলে যাবে। বাংলাদেশ নিজেদের কন্ডিশনে ভালো ক্রিকেট খেলে। আমাদের ভালো প্রস্তুতি নিতে হবে। আর তা হলেই কেবল ভালো ক্রিকেট খেলা সম্ভব।
একবার আমরা শুরুটা করলে আমাদের মন সতেজ হবে। তখন মনের পুরোটা জুড়ে শুধুই ক্রিকেট থাকবে।
বাংলাদেশ সফরে আসা ঝুঁকিপূর্ণ বলেছিল অনেকে। সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটাররা সমালোচনা করেছেন। কিন্তু বাটলার ও অন্যরা বেশ অটল ছিলেন। বাটলার বলেন, ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে সিরিজ হবে। আর খেলোয়াড়দের নিরাপত্তাও জোরালো করা হয়েছে। আমি তো এসে দেখছি আপনাদের সংবাদ সম্মেলন কক্ষে অনেকেই আছেন। এতেই বোঝা যায়, এখানে ক্রিকেটের প্রতি মানুষের দরদ কতটুকু। আশা করছি বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডের অসাধারণ সিরিজ হবে।
আফগানিস্তানকে বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশের ওয়ানডে রেকর্ডও ভালো। বাটলার এ প্রসঙ্গে বলেন, আমরা গত ১৮ মাস ধরে ভালো ক্রিকেট খেলে আসছি। কন্ডিশন আপনাকে বলে দেবে কেমন ক্রিকেট খেলবেন। আমি দলের ছেলেদের সবসময় বলি সামনে পায়ে খেল এবং আক্রমণ কর। তবে এখানে অন্য কিছু হতে পারে। বাংলাদেশ নিজেদের কন্ডিশনে সফল দল। আমরা এখন নিজেদের যাচাই করে দেখব।কীভাবে প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের বিপক্ষে ভালো করা যায় সেই চেষ্টা করা হবে। আমাদের দলটি তরুণ ও মেধাবীরা আছে। তারা সামনে এগিয়ে যেতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। আমরা বিশ্বে সেরা ওয়ানডে দলগুলোর একটি হতে চাই। এখন আমাদের কন্ডিশনের সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নিতে হবে।
অধিনায়কত্ব নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত বাটলার বলেন, আমার কাছে অধিনায়কত্ব চ্যালেঞ্জের। আমি সহঅধিনায়ক ১৮ মাস ধরে। মরগ্যানের সঙ্গে আমার সম্পর্কটি ভালোই। আমরা মানুষ ভিন্ন হলেও দেখার দৃষ্টিভঙ্গি একই। অধিনায়ক হতে গেলে অভিজ্ঞতা প্রয়োজন। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হতে পারাটা আমার জন্য গর্বের।
হেলস ও জো রুট আসেননি। নতুনদের জন্য ভালো সুযোগ বলে মনে করেন বাটলার। তিনি বলেছেন, নতুনরা ভালো করবে আশা করি।খেলোয়াড়দের জন্য এই কন্ডিশন চ্যালেঞ্জের কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে বাটলার বলেছেন, ছেলেদের জন্য অবশ্যই চ্যালেঞ্জের। আমরা দুবাইয়ে মানিয়ে নিয়েছিলাম। এখানে প্রথমেই আক্রমণ করে খেলা যাবে না। ব্যাটিংয়ে গিয়ে একটু স্থির হতে হবে। আমরা এমন এক দলের বিপক্ষে খেলতে যাচ্ছি (বাংলাদেশ) যারা নিজেদের কন্ডিশনে সবচেয়ে আত্মবিশ্বাসী। বাংলাদেশের স্পিনাররা ভালো করেন। তাই প্রস্তুতি নিয়েই খেলতে নামব।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View