Mountain View

খাদিজার সঙ্গে সেলফি, সমালোচনায় অপু উকিল

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ৬, ২০১৬ at ৩:৫২ অপরাহ্ণ

khadija2সিলেটে ছাত্রলীগকর্মীর হামলায় সংকটাপন্ন কলেজছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসকে দেখতে গিয়ে সেলফি তুলে তা ফেইসবুকে দেওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন অপু উকিলসহ যুব মহিলা লীগের তিন নেত্রী।

বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে খাদিজাকে দেখতে যান তারা।

যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিলের সঙ্গে যুগ্ম সম্পাদক কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি ও সংগঠনের নেত্রী ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য সাবিনা আক্তার তুহিনকে দেখা যায় ছবিতে।

হাসপাতালে খাদিজার পাশে যুব মহিলা লীগ নেত্রী সাবিনা আক্তার তুহিন, যিনি জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য। হাসপাতালে খাদিজার পাশে যুব মহিলা লীগ নেত্রী সাবিনা আক্তার তুহিন, যিনি জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য। ফেইসবুকে তুহিনের শেয়ার করা ছবির নিচে মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন অনেকে।
পিনহেইড ল্যারি নামের একটি নিক থেকে লেখা হয়েছে, “ফাজিল।”

এসএমডি অপু নামে একজন লিখেছেন: “মানুষের বিপদে পাশে থাকতে হয়। এরা আসলে নামে মানুষ আর কাজে অমানুষ।”

জাহিদুল ইসলাম নামে একজন লিখেছেন, “আন্টি মনে মনে যে কোনো একটা গালি চিন্তা করেন, মনে করেন আমি এটা দিছি আপনাকে… আমি আমার মুখ খারাপ করলাম না…!”

ফখরুল আদনান ফায়েজ মন্তব্যে লিখেছেন, “হিজড়া টাইপ।”

আদনান আহমেদ লিখেছেন, “উনি এই সব দেখাইয়া ভোট বাড়াইতে চায়?”
কাজী ফাতিহা বিনতে হাবিব লিখেছেন: “ইনহিউম্যানিটি অ্যাট ইটস বেস্ট।”

তানজিম রাফিন লিখেছেন: “ইফ আই অ্যাম নট রং সি ইজ মেনটালি ডিস্টার্বড পারসন।”

আহাদ আলী আদনান লিখেছেন, “অমানুষ।”

ওয়ালি খান রাজু লিখেছেন, “দেখতেই লাগে শয়তানের মত।”

ইমা ইশরাত প্রশ্ন করেছেন: “এরা কি মানুষ?”

সাইফুর রহমান নামের একজন ফেইসবুকে তিন যুবলীগ নেত্রীর ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, “আচ্ছা আপনারা কখনো গাধা বা গাধীকে সেলফি তুলতে দেখেছেন? আমি শয়তানদের সেলফি তুলতে দেখেছি….. মন্তব্য আশা করছি।”
তানজিলা তানজিলা নামের অ্যাকাউন্ট থেকে সেখানে মন্তব্যে লেখা হয়েছে: “এরা সেলফি তোলার আর জায়গা পেল না!”

‘ডেসপারেটলি সিকিং-ঢাকা’ নামের একটি গ্রুপে তুহিনের ছবি শেয়ার করে বলা হয়েছে, “আন্টি ফটোসেশনটা কেমন হইসে? ফ্রেন্ডস, শেম অন ইউ আন্টি এর বাচ্চা।”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অপু উকিল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “খাদিজা মারা গেছে-এ রকম অপপ্রচার চালানো হচ্ছিল। আজকে আমরা দেখতে গেছি, সে যে সুস্থ হয়ে উঠছে তা বোঝাতে ফেইসবুকে ছবি দিয়েছে তুহিন।”

অপু উকিলের শেয়ার করা এই পোস্টে খাদিজাকে তাদের দেখতে যাওয়ার খবর জানানো হয়েছে। অপু উকিলের শেয়ার করা এই পোস্টে খাদিজাকে তাদের দেখতে যাওয়ার খবর জানানো হয়েছে। যুবলীগ নেত্রীদের খাদিজাকে দেখতে যাওয়ার প্রশংসা করে একজনের পোস্ট শেয়ার করেছেন অপু উকিল। যুবলীগ নেত্রীদের খাদিজাকে দেখতে যাওয়ার প্রশংসা করে একজনের পোস্ট শেয়ার করেছেন অপু উকিল। সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম সোমবার এমসি কলেজে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে খাদিজাকে।
সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের এই ছাত্রী এখন স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বুধবার হাসপাতালে গিয়ে তাকে দেখে আসেন।

এ সম্পর্কিত আরও