Mountain View

শাবিপ্রবিতে ফের ছাত্রী নির্যাতন, আটক ২

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ৮, ২০১৬ at ২:২৪ অপরাহ্ণ

fb_img_14759142833465539 মো.শরিফুল ইসলাম বাপ্পি: যখন দেশজুড়ে সিলেট মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসকে কোপানোর ঘটনায় তোলপাড় চলছে তখন এর মধ্যেই আবারো শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রী মারধরের ঘটনা ঘটেছে । ঘটনার একপর্যায়ে শিক্ষকরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন।
নির্যাতিত ছাত্রী শাবির নৃবিজ্ঞান চতুর্থ বর্ষের। এ ঘটনায় নির্যাতনকারী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র কাওছার আহমদকে গণধোলাই দেয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। জালালাবাদ থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, ওই ছাত্রীর সঙ্গে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে দাবি করেছে কাওছার। আজকের ঘটনাকে ভুল বুঝাবুঝি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে সে। তাদের দুজনের বাড়িই হবিগঞ্জ জেলায়।

শাবি সূত্র হতে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে মেয়েটির সঙ্গে দেখা করতে কাওছার আহমদ তার বোনকে নিয়ে ক্যাম্পাসে আসে । ক্যাম্পাসে আলাপচারিতার একপর্যায়ে ভাইবোন মিলে ওই শিক্ষার্থীকে মারধর করতে থাকে। এ সময় শাবি অধ্যাপক সামসুল আলম ও সাজেদুল করিম ঘটনাস্থল দিয়ে যাওয়ার সময় কাওছারকে থামানোর চেষ্টা করেন। এতে কাওছার ক্ষুব্ধ হয়ে শিক্ষকদের উপরই চড়াও হয়। পরে সাধারণ শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে কাওছারকে মারধর করে। ঘটনার খবর পেয়ে জালালাবাদ থানা পুলিশ ক্যাম্পাসে গিয়ে কাওছার ও তার বোনকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভের মুখে পড়ে পুলিশ। পরে শিক্ষার্থীদের শান্ত করে কাওছার আহমদ, তার বোন ও লাঞ্ছিত ছাত্রীকে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

এ প্রসঙ্গে জালালাবাদ থানার ওসি আক্তার হোসেন বলেন, কাওছার ও তার বোনকে থানায় আটক রাখা হয়েছে। মারধরের শিকার হওয়া ছাত্রীও আমাদের জিম্মায় রয়েছে। সে অভিযোগ করলে এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে।
ঘটনার সত্যতা স্বিকার করে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার বলেন, আমাদের কাছে ছাত্রীকে মারধরের ভিডিও ফুটেজও আছে। আমরা ছাত্রীর বক্তব্য জানার অপেক্ষায় আছি। তার বক্তব্য পাওয়া গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।