ঢাকা : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, বুধবার, ৮:২৭ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

আগামীকাল কি ভাগ্য খুলবে ‘ফিনিশার’ নাসিরের!

91a85649289f18044cb3730396cbd082x479x288x23

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গেল রাতে জেতা ম্যাচ হারার পর নাসির হোসেনের কথাই মনে পড়েছে অনেকের। ২৪ বছরের এই অল রাউন্ডার ‘দ্য ফিনিশার’ নাম পেয়ে গিয়েছিলেন। কঠিন পরিস্থিতিতে খেলা শেষ করে আসার চমৎকার অভ্যাস তার। কিন্তু জাতীয় দলের সাথে থাকলেও একাদশে জায়গা মিলছে না অনেক দিন। কিন্তু ফিনিশিংয়ের অভাবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটা মুঠো গলে বেরিয়ে যাওয়ায় আরো বেশি আলোচনায় নাসির।

 

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে ছিলেন। কিন্তু ২৪ বছরের নাসিরের ড্রেসিং রুমেই বসে কেটেছে সময়। তার আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বের আগে একটি মাত্র ম্যাচে সুযোগ পেয়েছিলেন। বাকিটা সময় পর্যটক হয়ে থেকেছেন দলের সাথে। কিন্তু দুটি কারণে নাসিরকে এখন দরকার বলে মানছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

প্রথমত, আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ থেকেই শেষ ১০ ওভারে ভেঙে পড়ার রোগে আক্রান্ত টাইগার দল। শেষটা টেনে নিয়ে যেতে নাসিরের মতো কারো অভাব দেখা যাচ্ছে। আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ উইকেটে ২৭১ রান থেকে ২৮৮ রানে অল আউট তো ফিনিশারের অভাবে হার। ফিনিশার হিসেবে বরাবরই সুনাম নাসিরের।

 

দ্বিতীয়ত, ইংল্যান্ড দলে বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান আছেন কয়েকজন। তরুণ বেন ডাকেট, গেল ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান বেন স্টোকস, মঈন আলি, অলরাউন্ডার ডেভিড উইলিরা বাঁ হাতি। মাহমুদ উল্লাহ অফ স্পিনার। কিন্তু ৩ ওভারের বেশি বল করানো যায়নি তাকে দিয়ে। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা নাসিরকে তার দলের কোটা পূরণ করা অফ স্পিনারই মানেন। নাসির শেষ খেলেছেন গত নভেম্বরে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ওই সিরিজে তার ৪ উইকেট। তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩ ম্যাচে ৪ উইকেট। তারো আগ ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচে ২ উইকেট। ১০ ওভার বল করে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মূল্যবান ২ উইকেট নিয়েছিলেন। দলের জয়ে ছিল ভূমিকা।

 

এখন কথা হল, কার জায়গা নেবেন নাসির? আট বছর পর ফিরে আসা বাঁ হাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেনের কথাই বলা হচ্ছে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ওভারে ২৩ রান দিয়েছেন। অবশ্য ফেরার ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২৪ রানে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। কিন্তু দুই ম্যাচে রান ৪ ও অপরাজিত ৭। তাকে ব্যাটিংয়ে ৯ নম্বরে ছাড়া ভাবা যাচ্ছে না। কিন্তু নাসির জেনুইন ব্যাটসম্যান। তাই তাকে মোসাদ্দেক হোসেনের পর ৮ নম্বরে কিংবা পরিস্থিতি বিবেচনায় ৭ নম্বরে পাঠানো যায়। যেমনটি একাদশে থাকলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে টিম ম্যানেজমেন্ট হয়তো ৭ নম্বরেই পাঠাতো তাকে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনভিজ্ঞ মোসাদ্দেককে ওই কঠিন পরিস্থিতিতে পাঠানোর ঝুঁকি না নেওয়ার অপশন থাকতো।

 

নাসির কোটা পূরণ করার মতো অফ স্পিনার। জেনুইন ব্যাটসম্যান। দলকে রক্ষা করার মতো রোমাঞ্চকর ফিল্ডার। দুই ক্যাচ ফেলার কাণ্ডও মোশাররফের বিরুদ্ধে এখন। নাসির বোলিংয়ে নিয়ন্ত্রিত, নিশানায় নিখুত। ইকোনোমিতে কার্পণ্য আছে। ফিরলে প্রমাণের ও টিকে থাকার তাড়নাও থাকবে প্রবল।

 

বরাবর লোয়ার অর্ডারে ব্যাট করা নাসির ৫৬ ম্যাচে এক সেঞ্চুরিতে ১,২৩১ রান করেছেন। ফিফট ৬টি। গড় ৩২.৩৯। স্ট্রাইক রেট ৮০.৬১। ৩৫ ইনিংসে বেশিরভাগ সময় অকেশনাল বোলার হিসেবে বল করেও ৪.৫৯ ইকোনোমিতে ১৯ উইকেট নিয়েছেন। ২০১৬ ডাকা প্রিমিয়ার লিগেও অল রাউন্ড নৈপুণ্যে ভাস্বর ছিলেন। প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে ১৬ ম্যাচে ৫২৮ রান করেছিলেন। গড় ৭৫.৪২। স্ট্রাইক রেট ৯৬.৮৮। ১৬ ম্যাচেই ১৪ উইকেট নিয়েছিলেন। ৪.২৭ ইকোনোমি। সিরিজে ফিরতে দ্বিতীয় ম্যাচ জিততেই হবে টাইগারদের। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের বিশ্বাস, নাসিরের একাদশে ফেরা এই মুহূর্তে খুব জরুরী হয়ে উঠেছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

আইসিসি-র কাছে ব্যাটের মাপে সীমা বেঁধে দেওয়ার সুপারিশ

ইচ্ছামতো ব্যাট চওড়া ও মোটা করে ঝুরি ঝুরি রান বানানোর দিন বোধহয় শেষ। বিশ্ব ক্রিকেটের …

Mountain View

আপনার-মন্তব্য