ঢাকা : ৩০ মে, ২০১৭, মঙ্গলবার, ৪:৪৪ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৬ টাকা বাড়ছে!

বিপণনকারী কোম্পানিগুলোর নতুন দর প্রস্তাব বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের আগেই বাজারে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়ছে। সিটি গ্রুপ তাদের তীর ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেল লিটারপ্রতি ৬ টাকা বাড়িয়ে বাজারে ছাড়তে শুরু করেছে। অন্য কোম্পানির অনেক পরিবেশক বোতলের গায়ে পুরোনো দর লেখা তেল লিটারে ২ টাকা বাড়তি দামে বিক্রি করছেন বলে অভিযোগ করেছেন খুচরা বিক্রেতারা।

তবে বেশির ভাগ খুচরা দোকানেই এখনো পুরোনো দরের তেল রয়ে গেছে। অনেক বিক্রেতা সেগুলো আগের দামেই বিক্রি করছেন। অবশ্য বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম যে বাড়ছে, সে খবর সব বাজারেই পৌঁছে গেছে।

বোতলজাত সয়াবিন তেলের বাজারের ৯০ শতাংশের দখল সিটি গ্রুপ, বাংলাদেশ এডিবল অয়েল ও মেঘনা গ্রুপের হাতে। এ ছাড়া আরও কয়েকটি কোম্পানির তেল বাজারে আছে। সাধারণত প্রধান তিন কোম্পানির একটি দাম বাড়ালে অন্যরাও বাড়িয়ে থাকে। সিটি গ্রুপ বোতলজাত সয়াবিনের দাম লিটারে ৬ টাকা বৃদ্ধি করায় অন্যরাও একই হারে বাড়াবে বলে জানিয়েছেন বাজারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বেড়ে যাওয়ায় কোম্পানিগুলো গত ২৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনে (বিটিসি) বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি ৮ থেকে ৯ টাকা বাড়িয়ে ১০৩ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব দেয়। অন্যদিকে বাংলাদেশ এডিবল অয়েল তাদের রূপচাঁদা ব্র্যান্ডের তেলের দাম নিয়ে আলাদা প্রস্তাব দিয়েছে।

কোম্পানিগুলোর দাবি, আন্তর্জাতিক বাজারে দাম প্রায় ১৫ শতাংশ বেড়েছে। এখন দেশে না বাড়ালে আমদানি নিরুৎসাহিত হয়ে সংকট তৈরি হতে পারে। তাদের প্রস্তাব বিশ্লেষণ করে ট্যারিফ কমিশন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে সুপারিশ পাঠিয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এখনো কোম্পানিগুলোকে এ বিষয়ে কিছু জানায়নি বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে গতকাল শনিবার রাতে বাণিজ্যসচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা আন্তর্জাতিক বাজারদর পর্যালোচনা করছি।’

এত দিন সিটি, মেঘনা ও অন্য কোম্পানিগুলোর এক লিটার সয়াবিনের বোতলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য (এমআরপি) ছিল ৯৪-৯৫ টাকা। ৫ লিটারের ক্ষেত্রে তা ৪৬৫-৬৭০ টাকা ছিল। অন্যদিকে বাংলাদেশ এডিবল অয়েল তাদের রূপচাঁদা ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেল ৯৮ টাকা দরে বিক্রি করছে। তাদের ৫ লিটার বোতলের দর এখন ৪৮০ টাকা।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) বাজারদরের তালিকা অনুযায়ী, এখন বাজারে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৯৭ থেকে ১০০ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগে ৯৪ থেকে ৯৮ টাকা ছিল। টিসিবির হিসাবে ৫ লিটার বোতলের দাম বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা।

রাজধানীতে পণ্যের দামের পরিবর্তন সবার আগে ঘটে বড় বাজারগুলোতে। এ ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকে কারওয়ান বাজার। গতকাল রাজধানীর কারওয়ান বাজারের কয়েকটি দোকানে বোতলজাত সয়াবিন তেল আগের চেয়ে লিটারে ২ টাকা বাড়িয়ে বিক্রি করতে দেখা যায়। বিক্রেতারা জানান, তাঁরা কয়েক দিন আগেও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেলের ৫ লিটারের জার ৪৫০ টাকা দরে বিক্রি করতেন। অন্যদিকে রূপচাঁদা বিক্রি হতো ৪৬৫ থেকে ৪৭০ টাকা দরে। এখন ৫ লিটারের বোতল ১০ টাকা বাড়িয়ে বিক্রি করতে হচ্ছে।

কারওয়ান বাজারের ইউসুফ ট্রেডার্সের মালিক মো. ইউসুফ প্রথম আলোকে বলেন, পুরোনো তেলই বোতলপ্রতি (৫ লিটার) ১০ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে। ফলে আগের চেয়ে লিটারে ২ টাকা বাড়িয়ে বিক্রি করতে হচ্ছে। তিনি বলেন, তীর ব্র্যান্ড তেলের এক লিটার বোতলের দর ১০০ টাকা করা হয়েছে। অবশ্য সেই তেল এখনো তিনি দোকানে আনেননি।

মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটে সিটি গ্রুপের পরিবেশক খালেক অ্যান্ড সন্সের বিক্রেতা মো. সুমন বলেন, তাঁদের দোকানে তীর ব্র্যান্ডের নতুন দামের তেল এসেছে গত বৃহস্পতিবার। নতুন দর অনুযায়ী, এক লিটার বোতলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ১০০ টাকা। দুই লিটারের ক্ষেত্রে তা ১৯৮ টাকা এবং ৫ লিটারের ক্ষেত্রে ৪৯৫ টাকা।

তীর ব্র্যান্ডের নতুন দর লেখা সয়াবিন তেলের বোতলের ছবি প্রথম আলোর কাছে আছে। সেখানে প্যাকিং বা বোতলজাত করার তারিখ লেখা আছে ৪ অক্টোবর। অবশ্য সিটি গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক বিশ্বজিৎ সাহা দাবি করেন, তাঁরা এখনো দাম বাড়াননি। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘পরিবেশকেরা আগে থেকে অনেক সরবরাহ আদেশ দিয়ে রেখেছিলেন। আমরা এখনো পুরোনো দরেই তেল সরবরাহ করছি।’

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

পরিবারতন্ত্রের শেষ পেরেক ব্যাংকিং খাতে

পরিচালকদের নজিরবিহীন সুযোগ দিয়ে ব্যাংক কোম্পানি আইন আবারও সংশোধন করছে সরকার। সংশোধনী কার্যকর হলে যে …

আপনার-মন্তব্য