Mountain View

শ্লীলতাহানির অভিযোগ ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ৯, ২০১৬ at ৫:৪৩ অপরাহ্ণ

নওগাঁয় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর ডাটা এট্রি অপারেটর পদের এক মহিলা কর্মচারীকে জোরপূর্বক শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে শারীরিক নির্যাতন করছে একই অফিসের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার অ্যাডমিন কমল কৃষ্ণ রায়।

ঘটনার পর পল্লী বিদ্যুৎ এন্ড বোর্ড থেকে ওই মহিলাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে আর কর্মকর্তা কমল কৃষ্ণ রায়ের বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার উদ্দেশ্যে সিলেট  তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে মোটা অংকের টাকা দিয়ে ধামাচাপা দেয়ার জন্য চেষ্টা করছেন একটি মহল। এছাড়া কর্মকর্তারা ওই মহিলা কর্মচারীকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সচেতন মহলের প্রশ্ন ঘটনার মূল হোতা ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছেন আর শাস্তি পাচ্ছেন ওই নারী কর্মচারী।

পল্লী বিদ্যুৎ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা জেলার সাতানি গ্রামের রিয়াজুল ইসলাম ও মাছুরা বেগমের মেয়ে ওই মহিলা কর্মচারী। গত ২৮ মে নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর ডাটা এট্রি অপারটর পদে অস্থায়ী ভিত্তিতে চাকরিতে যোগদান করেন। চাকরিতে যোগদানের পর থেকেই কর্মকর্তা কমল কৃষ্ণ রায় তার সাথে বিভিন্নভাবে সখ্য গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য বিভিন্ন প্রলোভনসহ উপহারসামগ্রী দেয়া এবং কারণে অকারণে ফোন দিয়ে কথা বলার চেষ্টা করতেন। গত ৫ অক্টাবর রাত ১১টায় ওই কর্মচারীকে কমল কৃষ্ণ রায় জোরপূর্বক শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। নারী কর্মচারীর চিৎকারে পাশের ঘরের লোকজন এস তাকে উদ্ধার করে। এ সময় কমল কৃষ্ণ রায় কোনো কিছু না করার জন্য বলে এবং তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়।full_175197824_1476012998

মহিলা কর্মচারী বলেন, অন্যায়ভাবে আমাকে চাকরি থেকেও শোকজ করা হয়েছে। এমনকি আমাকে চাকরি থেকেও বাদ দেয়া হবে বলেও হুমকি দেয়া হচ্ছে। কমল কৃষ্ণ রায়কে অন্যত্র স্থানান্তর করা হয়েছে। আমি এ অন্যায়ের ন্যায্য বিচার চাই।

ওই নারীর মা মাছুরা বেগম বলেন, আমরা গরিব মানুষ। মেয়েটার চাকরি চলে গেলে আমাদের পথে বসতে হবে। আমাদের কোন কিছু না করার জন্য বিভিন্নভাবে কর্মকর্তারা বুঝানোর চেষ্টা করছেন।

সহকারী জেনারেল ম্যানেজার অ্যাডমিন কমল কৃষ্ণ রায়ের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির-১ এর জিএম এনামুল হক প্রামাণিক জানান, পল্লী বিদ্যুৎ এন্ড বোর্ডের নির্দেশে কর্মচারীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ ও কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। তাদের বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়ার ক্ষমতা আমার নেই। এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঘটনার সত্যতাও পাওয়া গিয়েছে, তবে দোষী দুজনেই। আমাদর ডিপার্টমেন্ট তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View