Mountain View

আইসিসিতে মারাত্মক ঝুঁকির মুখে পড়েছেন সাব্বির

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১১, ২০১৬ at ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ

ক্রিকেট বিশ্বের সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনার তুঙ্গে উঠে এসেছে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ২য় ওয়ানডে ম্যাচে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা।sabbirrahman02_large

এই ম্যাচের ঘটনা পর্যবেক্ষণ করেছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান আইসিসি। কোড অফ কন্ডাক্ট লঙ্ঘনের দায়ে ডিমেরিট পয়েন্টস পেয়েছে মাশরাফি ও সাব্বির।

তবে এখানেই শেষ নয় আইসিসিতে মারাত্মক ঝুঁকির মুখে পড়েছেন সাব্বির রহমান। ম্যাচের ২৮ তম ওভারে তাসকিনের বলে বাটলারের বিপক্ষে এলবিডব্লিউয়ের রিভিউ চায় বাংলাদেশ। আর এই রিভিউয়ের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের পক্ষে আসলে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়ে বাংলাদেশের খেলোয়াররা।

বুনো আনন্দে মেতে ওঠেন সবাই। আর এই উদযাপনটাই ভালো লাগেনি বাটলারের। আর তাই তিনিও ক্ষুব্ধ

হয়ে তেড়ে যান বাংলাদেশের খেলোয়ারদের দিকে। আর এতেই ম্যাচের দিক থেকে সবার চোখ সরে চলে যায় কোড অফ কন্ডাক্ট ভঙ্গের দিকে।

ম্যাচ শেষে অনুমিতভাবেই জরিমানা করা হয় মাশরাফি আর সাব্বিরকে। আর অপরদিকে বাটলারকে সতর্ক করা হয় একইভাবে। আইসিসির বিবৃতিতে আজ জানানো হয়েছে, কোড অব কন্টাক্টের ২.১.৭ ধারা ভঙ্গের জন্য মাশরাফি ও সাব্বিরে ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ কর্তন করা হয়েছে। বাটলারকে সতর্ক করা হয়েছে ২.১.৪ ধারায়, যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে ‘এমন কোনো ভাষা বা ভঙ্গি ব্যবহার করা, যা অসভ্য কিংবা অপমানদায়ক।’

এত সব শাস্তির পাশাপাশি আইসিসির নতুন সংযোগ ‘ডিমেরিট পয়েন্টস’। আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী, আচরণবিধি লঙ্ঘনের জন্য এখন গুরুত্ব বিবেচনা করে ‘ডিমেরিট’পয়েন্ট দেওয়া হয়। আচরনবিধি লঙ্ঘনের গুরুত্ব অনুযায়ী সর্বনিম্ন ১ পয়েন্ট থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৪ পয়েন্ট পর্যন্ত দেওয়া যায়। আর এই পয়েন্টের নিয়মানুযায়ী ২৪ মাস সময়ের মধ্যে কোনো খেলোয়াড় ৪ পয়েন্ট ‘ডিমেরিট’ পেলে ২টি নিষেধাজ্ঞা পয়েন্ট যোগ হবে। এর ফলে এক টেস্ট কিংবা দুটি ওয়ানডে বা দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নিষিদ্ধ হতে হবে খেলোয়াড়কে।

আর এই ম্যাচে অশোভন আচরনের দায়ে একটি করে ‘ডিমেরিট’ পয়েন্ট যুক্ত হয়েছে অভিযুক্ত তিন খেলোয়াড়ের খাতায়। মাশরাফি ও বাটলারের পয়েন্ট এখন ১ করে। অপরদিকে আফগানিস্তান সিরিজেই ২ পয়েন্ট পাওয়ায় সাব্বিরের ‘ডিমেরিট’ পয়েন্ট এখন ৩! অর্থাৎ বেশ ঝুঁকিতেই পড়েছেন সাব্বির।

এ সম্পর্কিত আরও