ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার চ্যালেঞ্জ

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১১, ২০১৬ at ৭:৫৯ পূর্বাহ্ণ

20161011074912
স্পোর্টস ডেস্ক: তুরুপের তাস ছাড়া কি বাজিমাত করা যায়? ফুটবলের জন্য ঠিক সেটা প্রযোজ্য হওয়া উচিত হয় না, খেলাটা তো আর একজনের না। কিন্তু ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সাম্প্রতিক ইতিহাস বলছে, তূণের সবচেয়ে ধারালো তির ছাড়া দুই দলই লক্ষ্যভেদটা ঠিকঠাক করতে পারছে না।

কাল বাংলাদেশ সময় ভোরে প্যারাগুয়ের সঙ্গে আর্জেন্টিনার আর ভেনেজুয়েলার সঙ্গে ব্রাজিলের ম্যাচটা দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে অশনিসংকেতই দিচ্ছে।আর্জেন্টিনার অবস্থাই বেশি করুণ। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে লিওনেল মেসিকে ছাড়া নামলেই যে খেই হারিয়ে ফেলছে!

এখন পর্যন্ত দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার নয়টি ম্যাচের মাত্র তিনটিতে খেলেছেন মেসি। আর্জেন্টিনা জয় পেয়েছে ওই তিনটিতেই। যে ছয়টি ম্যাচে খেলেননি, তাতে জয় এসেছে মাত্র একটি ম্যাচে। চারটি ম্যাচে ড্র করেছে, আর দুটি ম্যাচে হারতে হয়েছে।

মেসির মান ভাঙিয়ে অবসর থেকে ফেরাতে কম চেষ্টা করেননি আর্জেন্টিনা কোচ এদগার্দো বাউজা। কিন্তু চোটের জন্য যে মেসিকেই পাচ্ছেন না। আজও মেসিবিহীন আর্জেন্টিনাকে বড় একটা পরীক্ষাই দিতে হবে সেটা শুধু মেসি নেই বলে নয়, অন্য কারণেও।

সার্জিও আগুয়েরোও চোট পেয়েছেন, কাল তাঁর মাঠে নামা অনিশ্চিত। বাউজার সবচেয়ে বড় ভয় রক্ষণ নিয়ে। সর্বশেষ দুই ম্যাচে আর্জেন্টিনা ৪ গোল হজম করেছে। তার ওপর নিষেধাজ্ঞার খড়্গের নিচে পড়ে কাল খেলতে পারবেন না রক্ষণের নিয়মিত তিন মুখ ওটামেন্ডি, জাবালেতা ও ফিউনেস মোরি। কাল হয়তো রক্ষণের নেতা হবেন ৩৬ বছর বয়সী মার্টিন ডেমিচেলিসকে।

ব্রাজিলের সমস্যা অবশ্য আর্জেন্টিনার মতো নয়। আর্জেন্টিনা বাছাইপর্বের পাঁচে নেমে গেছে, তবে তিতের ব্রাজিল টানা তিন জয়ে উঠে এসেছে দুইয়ে। তবে তিতের বড় দুশ্চিন্তা, কাল কলম্বিয়ার সঙ্গে পাচ্ছেন না নেইমারকে। বাছাইপর্বে ব্রাজিলের হয়ে ছয়টি ম্যাচে খেলেছেন নেইমার। তাতে ব্রাজিলের জয় চারটি, ড্র দুটি। একটিতেও হার নেই। আর নেইমারকে ছাড়া যে তিনটি ম্যাচ খেলেছে, তার একটিতে হেরেছে আর আরেকটিতে ড্র করেছে। অন্য ম্যাচটি জিতেছে।

নিষেধাজ্ঞার কারণে নেইমারকে কাল ভালোই ‘মিস’ করতে পারেন তিতে! ব্রাজিল যেখানে খেলবে, সেই মেরিদাতে আর্জেন্টিনাকে ২-২ গোলে আটকে দিয়েছিল ভেনেজুয়েলা। ইতিহাস বলছে, নেইমারবিহীন সেলেসাওদের পরীক্ষাটা সহজ না-ও হতে পারে! —ইএসপিএন।

এ সম্পর্কিত আরও