লর্ডসে সৌরভের সেই উদোম গায়ের উদযাপন ভুলে গেল ইংলিশরা!

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১১, ২০১৬ at ১:৩৯ অপরাহ্ণ

sowrove

তিন বছর আগে অ্যাশেজ জয়ের পর উদ্যাম মদ্যপান করে উদযাপন করে ইংলিশ বাহিনী! বেন স্টোকসের সাথে মারলন স্যামুয়েলসের রেষারেষির ঘটনা তো সবারই জানা, দিল্লীতে সিরিজ জয়ের পর জার্সি খুলে উদযাপন তার প্রতিশোধে লর্ডস বেলকোনিতে সৌরভ গাঙ্গুলীর উদযাপন তো ক্রিকেট ইতিহাসেরই অংশ! কিন্তু আজকের মাশরাফিদের নিরীহ এই উদযাপনে ইংলিশ ক্রিকেটারদের অহমে  আঘাত লাগবে কেন!

অতিরিক্ত উদযাপনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাব্বির রহমানকে ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা করেছে আইসিসি। আর ইংলিশ অধিনায়ক জস বাটলারকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। শুধু উদযাপনের জন্য এমন শাস্তি দেয়ায় দেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমজুড়ে তোলপাড়, আর ম্যাচের পর হাত মেলানোর সময় বেন স্টোকস আর জনি বেয়ারস্টোর তামিম ইকবালের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। সে বিষয় এড়িয়ে যান ম্যাচ রেফারি।

তাসকিনের বলে বাটলারের এলবির আবেদন ফিল্ড আম্পায়ার নাকচ করলে রিভিউ নেন অধিনায়ক মাশরাফি। পুরো স্টেডিয়াম জুড়ে তখন পিনপতন নীরবতা। শের-ই বাংলার স্কোরবোর্ডে আউট লেখা ফুটে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে উৎসবে মেতে ওঠে গোটা বাংলাদেশ।

অবাক করা বিষয় হলেও সত্য, এই উৎসব পছন্দ হলো না জস বাটলারের! তিনি নিজেও মুখ ঘুরিয়ে যাবার সময় মাশরাফি বাহিনীকে বিষোদগার করতে করতে ফেরত যান প্যাভিলিয়নে।

ম্যাচ রেফারি দোষ দেখলেন মাশরাফিদের উল্লাসে! যে কারণে মাশরাফি ও সাব্বিরের ম্যাচ ফি থেকে ২০ শতাংশ করে কেটে নেয়া হয়, সাথে যোগ জস বাটলারের সাথে এই দুই ক্রিকেটারের ভাণ্ডারে জমে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট, যার চারটি জমা হলে এক টেস্ট বা ২ ওয়ানডে কিংবা ২ টি টোয়েন্টির জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন।

আর ম্যাচের পর যা হলো তা ছিল অভাবনীয়। ম্যাচ জয় শেষে হাত মেলানোর সময় তামিম ও বেয়ারস্টোর মধ্যে বাক্য বিনিময় হয়। তখন তৃতীয় পক্ষের ভূমিকায় বেন স্টোকস তেড়েফুঁড়ে যান দেশ সেরা ওপেনার তামিমের দিকে। সাকিব ছিলেন নিরপেক্ষ ভূমিকায়।

এই ঘটনা নিয়ে ম্যাচ রেফারি জাভাগাল শ্রীনাথ কোন পদক্ষেপ নেননি! ম্যাচ শেষে মাশরাফি অতি-উদযাপনের জন্য ক্ষমা চাইলেও, জস বাটলারদের মনে তখনও ক্ষোভের আগুন! ব্রিটিশরা যেন মেনেই নিতে পারছেনা এই পরাজয়ের জ্বালা।

এ সম্পর্কিত আরও