ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৫:৩৬ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

তামিম বনাম ইংল্যান্ড : কী বলছে পরিসংখ্যান

20161011081001
স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশ ক্রিকেটে ধুম ধাড়াক্কা ব্যাটিং মানেই তামিম ইকবাল খান। বাংলাদেশ ক্রিকেটে তামিমকে ছাড়া যেন কল্পনাও করা যায় না। অনেকের ধারণা তামিমের শুভ সূচনা মানেই বাংলাদেশ ক্রিকেটে ৫০ শতাংশ কার্য হাসিলে সমান।সর্বশেষ আফগানিস্তানের বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাট চালিয়েছেন চট্টগ্রামের এই কৃতি সন্তান। শেষ ম্যাচে দুর্দান্ত সেঞ্চুরিও হাঁকিয়েছেন। তার ১১৮ রানের উপরভর করেই রানের পাহাড় গড়ে বাংলাদেশ।

কিন্তু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ওয়ানডেতে সেই তামিমকে দেখা যাচ্ছে না। এই সিরিজে তাকেই যে বেশি প্রয়োজন। সফরকারী ইংলিশদের বিপক্ষে হোম সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে তার রান যথাক্রমে ১৭ এবং ১৪। বলা চলে যা তামিমের নামের পাশে একেবারেই যায় না।

তবে প্রশ্ন থেকে যায় সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচের আগে তামিমের কি মনে পড়বে লর্ডসের সেই সেঞ্চুরির কথা? সেদিন ইংল্যান্ডের মাটিতে ১৫৭ বলে ১৫ চার এবং ২ ছক্কায় ১০৩ রানের রাজসিক ইনিংস খেলেছিলেন এই ড্যাশিং ওপেনার। ২০১০ সালের মে মাসে অনুষ্ঠিত সেই টেস্ট শতকের কারণে তামিমের নাম উঠে যায় ‘ক্রিকেটের মক্কা’ খ্যাত লর্ডসের অনার বোর্ডে।

দেশের মাটিতেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে উজ্জল ইতিহাস আছে তামিমের। এজন্য ফিরে তাকাতে হবে ২০১০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারির দিকে। সেদিন মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ১১৭ বলে ১২৫ রানের একটি ঝলমলে ইনিংস খেলেন তামিম। ১০৪.১৬ স্ট্রাইক রেটে ১৩টি চার এবং ৩টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন সেদিন। ম্যাচটি ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে জিতে নিলেও ম্যাচ সেরার পুরস্কার এসেছিল তামিমের হাতেই।

ইংলিশদের বিপক্ষে ওয়ানডেতে তামিমের অর্জন ১১ ম্যাচে ২৬.৯০ গড়ে ২৯৬ রান। সেঞ্চুরি ১টি। তবে কোনো হাফসেঞ্চুরি নেই! পরিসংখ্যানটা ঠিক ‘তামিমীয়’ ঠেকবে না এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু টেস্টেই আবার এই পরিসংখ্যান বিপরীত। ৪ ম্যাচের ৮ ইনিংসে ৬৩.১২ গড়ে তামিমের রান ৫০৫! স্ট্রাইক রেট ১০৮, দুই সেঞ্চুরি, চারটি হাফসেঞ্চুরি তামিমের নামের পাশে পুরোপুরি মানানসই। তার মানে, টেস্টে তামিমের পছন্দের তালিকায় ইংল্যান্ড অন্যতম।

টেস্ট সিরিজ তো আছেই; কিন্তু তার আগে তো ওয়ানডে সিরিজটা জিতে দেশের মাটিতে টানা সপ্তম সিরিজ জয়ের ধারাবাহিকতা রাখতে হবে। সেই সঙ্গে তামিম নিজেও দাঁড়িয়ে একটি দারুণ মাইলফলকের সামনে। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ওয়ানডেতে ৫০০০ রানের মাইলফলক থেকে তিনি মাত্র ৩৮ রান পিছিয়ে। না, এটা কোনো চাপ নয়। কারণ তামিম রান করলে হাসবে পুরো বাংলাদেশ।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

অস্ট্রেলিয়ার পথে পাড়ি জমালো যে১৩ জন ক্রিকেটার

নিউ জিল্যান্ড সিরিজের প্রাথমিক স্কোয়াডের ২২ ক্রিকেটারের মধ্যে আজ ১৩ জন ক্রিকেটার পাড়ি জমালো অস্ট্রেলিয়ার …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *