Mountain View

সেন্ট মার্টিনে আটকা পড়েছে ৩০০ পর্যটক

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১২, ২০১৬ at ৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ

সাগর প্রচণ্ড উত্তাল থাকায় গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে সেন্ট মার্টিন দ্বীপে আটকা পড়েছে প্রায় ৩০০ পর্যটক।
কক্সবাজার আবহাওয়া কার্যালয়ের সহকারী আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক গতকাল বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, সঞ্চালনশীল মেঘমালার কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর, উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্রবন্দরের ওপর দিয়ে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। তাই কক্সবাজার উপকূলকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। এর ফলে কক্সবাজারে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হচ্ছে। কালও (আজ বুধবার) এ সংকেত বহাল থাকতে পারে।
সেন্ট মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নুর আহমদ বলেন, গত সোমবার সকালে টেকনাফ থেকে তিনটি জাহাজে করে প্রায় দেড় হাজার পর্যটক সেন্ট মার্টিন ভ্রমণে আসেন। বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে ১ হাজার ২০০ পর্যটক সেন্ট মার্টিন থেকে টেকনাফ ফিরে গেলেও ৩০০ জন দ্বীপের বিভিন্ন হোটেলে থেকে যান। বৈরী আবহাওয়ার কারণে সাগর উত্তাল হওয়ায় জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে সেন্ট মার্টিনে অবস্থান করা পর্যটকেরা টেকনাফে ফিরতে পারেননি।
কেয়ারী সিন্দাবাদ ও কেয়ারী ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন জাহাজের টেকনাফের ব্যবস্থাপক মো. শাহ আলম বলেন, ‘সাগর ও নাফ নদী প্রচণ্ড উত্তাল থাকায় আজ মঙ্গলবার কোনো জাহাজ টেকনাফ থেকে সেন্ট মার্টিন যেতে পারেনি। কাল বুধবারও সাগর শান্ত হয় কি না, সন্দেহ আছে। সাগর শান্ত হলে টেকনাফ থেকে জাহাজ গিয়ে সেন্ট মার্টিনে আটকে পড়া পর্যটকদের নিয়ে আসতে পারবে।’

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শফিউল আলম বলেন, হঠাৎ করে আবহাওয়া কার্যালয় থেকে ৩ নম্বর সংকেত দেওয়ায় মঙ্গলবার সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড, পুলিশ ও ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে আটকে পড়া পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। তিনি বলেন, আবহাওয়ার উন্নতি হলে আটকে পড়া পর্যটকদের ফেরত আনা হবে |

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View