Mountain View

ব্রিকস-বিমসটেক সম্মেলনে যোগ দিতে রোববার ভারত যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৪, ২০১৬ at ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ

pm-hasina-2

ব্রিকস-বিমসটেক সম্মেলনে যোগ দিতে রোববার (১৬ অক্টোবর) সকালে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।২৩ ঘণ্টার সংক্ষিপ্ত সফরে প্রধানমন্ত্রী ব্রিকস-বিমসটেক সম্মেলনে অংশগ্রহণ ছাড়াও ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুত চ্যান ওচা, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং টোবগে, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহলের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় স্বাক্ষাতে মিলিত হবেন।

এসব সাক্ষাতে দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও গুরুত্ব পাবে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়,আগামী রোববার সকাল ৮টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ভারতের গোয়া নেভাল এয়ারপোর্টের উদ্দেশে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সকাল সাড়ে ১০টায় গোয়া নেভাল বিমানবন্দরে পৌঁছালে সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাবেন ভারতের গোয়া’র বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী আলিনা সালদানহা, গোয়া সরকারের সেক্রেটারি (কো-অপারেশন) পদ্ম যশওয়াল, ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার, মুম্বাইয়ে নিযুক্ত ডেপুটি হাই কমিশনার।

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া ছাড়াও তার সম্মানে স্ট্যাটিক গার্ড প্রদান করা হবে, ঐতিহ্য অনুযায়ী সব আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্নের মাধ্যমে সম্মান জানানো হবে।

বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী তার সফরকালীন আবাসস্থল হোটেল দি লীলা গোয়ায় যাবেন।সেখানে শেখ হাসিনা ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং টোবগের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হবেন।

দুপুরে সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী নেতাদের সম্মানে দেওয়া গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্মীকান্ত পারসেকরের সঙ্গে মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা।

বেলা ২টার দিকে সফরকালীন আবাসস্থলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুত চ্যান ওচা’র সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হবেন।

পরে বেলা আড়াইটার দিকে তাজ এক্সোটিকাতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন।

বেলা ৪টার দিকে আবাসস্থলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমসটেক লিডার্স রিট্রিট এ অংশ নেবেন। যেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সূচনা ও সমাপনী বক্তব্য রাখবেন। বিমসটেক জেনারেল সেক্রেটারির সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের পর বিমসটেক নেতারা সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখবেন।

বিকেলেই হোটেল লবিতে ব্রিকস নেতাদের আগমনী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। পরে সেখানে ব্রিকস-বিমসটেক নেতাদের গ্রুপ ফটোসেশনে অংশ নেবেন। হোটেল দি লীলা গোয়ার হ্যাংগার ভেন্যুতে ব্রিকস-বিমসটেক লিডার্স আউটরিচ সামিটে অংশ নেবেন।

এখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বাগত বক্তব্যের পর ব্রিকস-বিমসটেক এর নেতারা বক্তব্য রাখবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ অঞ্চলের উন্নয়ন-অগ্রগতি ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখবেন।

দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সাতটি দেশ বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার ও থাইল্যান্ড এর মধ্যে  কারিগরি ও অর্থনৈতিক জোট বিমসটেক।

অন্যদিকে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকার জোট ব্রিকস।রাত সাড়ে আটটার দিকে হ্যাংগার ভেন্যুর সৈকতে সামিট নৈশ ভোজে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহলের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন।সবশেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হোটেলে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সাক্ষাতে মিলিত হবেন।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৭টায় গোয়া নেভাল বিমানবন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।বেলা পৌনে ১১টার সময় তার হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View