অবশেষে প্রিয়াঙ্কার ক্ষমা প্রার্থনা

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৬ at ৫:৩১ অপরাহ্ণ

priyanka-chopra-bg20161018162734

বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ক্ষমা চাইলেন। কন্ডে ন্যাস্ট ট্রাভেলার ম্যাগাজিনে তিনি যে পোশাক পরে প্রচ্ছদকন্যা হয়েছেন, তাতে অভিবাসী ও শরণার্থীদের জন্য তার বিন্দুমাত্র অনুভূতি নেই বলে সমালোচনা করেছেন অসংখ্য মানুষ। তাই ক্ষমা চেয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এই তারকা।

প্রিয়াঙ্কার পরা পোশাকটিতে ‘মাইগ্রেন্ট’ (অভিবাসী), ‘রিফিউজি’ (শরণার্থী) ও ‘আউটসাইডার’ (আগন্তুক) শব্দ তিনটি কেটে দেওয়া হয়েছে। তবে এগুলোর নিচে থাকা ‘ট্রাভেলার’ (পর্যটক) শব্দটি কাটা হয়নি। এর মাধ্যমে ম্যাগাজিনটির নামের গুনগান করা হয়েছে বলে সমালোচনার ঝড় ওঠে প্রিয়াঙ্কা ও প্রকাশকের বিরুদ্ধে।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) ভারতের সংবাদ চ্যানেল এনডিটিভিকে প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, ‘অন্যদের অনুভূতিতে আঘাত আসায় আমি সত্যিই ক্ষমাপ্রার্থী। আমি সবসময়ই মানুষকে শ্রেণীবিভক্ত করার বিপক্ষে। আমার ওপর এই ঘটনা খুবই নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। সত্যিই ভীষণ খারাপ লাগছে।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিন্দিত হওয়ায় প্রিয়াঙ্কা যোগ করে আরও বলেন, ‘এ প্রচ্ছদের মাধ্যমে বিদেশিদের অর্থাৎ পর্যটকদের নিয়ে অহেতুক ভয় না পাওয়ার বার্তা দেওয়াই ছিলো ম্যাগাজিনটির পরিষ্কার উদ্দেশ্য। আমরা বরং শরণার্থীদের প্রতি সমর্থন জানিয়েছি এর মাধ্যমে। কিন্তু প্রচ্ছদটির বার্তা বিকৃতভাবে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মানুষ এটা আমার ওপর দেখেছে বলে দুঃখিত।’

চলতি মাসের শুরুতে প্রিয়াঙ্কা নিজেই টুইটারে ম্যাগাজিনটির প্রচ্ছদ শেয়ার করেন। অনেকের মন্তব্য, এ প্রচ্ছদের মাধ্যমে শরণার্থী হওয়া যাবে না এমন বার্তা দেওয়া হয়েছে। তবে বার্তা সংস্থা বিবিসিকে কন্ডে ন্যাস্ট জানিয়েছে, তাদের উদ্দেশ্য ছিলো পর্যটকদের আলাদা করা। এক বিবৃতিতে ম্যাগাজিনটি দাবি করেছে, তারা সীমান্তের কাঁটাতারহীন বিশ্বে বিশ্বাসী।

এ সম্পর্কিত আরও