Mountain View

কেন টেস্ট দলে রাখা হয়নি তাসকিনকে?

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৬ at ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

taskin in test

স্পোর্টস  ডেস্ক:ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট দল ঘোষণার আগে সবচেয়ে জোড়ালো আলোচনার বিষয় ছিলো বাংলাদেশের পেস অ্যাটাক। রুবেলের অফফর্ম, শহীদ-মুস্তাফিজের ইঞ্জুরি, সবমিলিয়ে শফিউলের সহযোগি কে হবেন তা না নিয়ে ছিলো তুমূল আলোচনা। আর এই আলোচনা থেকেই উঠে এসেছিলো টেস্ট অভিষেক না হওয়া তাসকিন আহমেদের নাম।

যার ফলে সাদা পোশাকে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা টাইগার পেসার তাসকিন আহমেদের আসন্ন টেস্ট সিরিজেই জাতীয় দলের ক্যাপ মাথায় উঠার সম্ভাবনা জেগেছিল। তবে, আজ টেস্ট দল ঘোষণা করে হলে ১৪ সদস্যের ভেতর পাওয়া যায়নি তাসকিনের নাম। ফলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তাসকিনের যে অভিষেক হচ্ছেনা তা নিশ্চিত হয়ে গেল।

তবে এর আগেই সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসছে সিরিজে তাসকিন আহমেদের টেস্ট খেলার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছিলেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।তাসকিনকে দেখা যেতে পারে বলে নির্বাচকরাও জানিয়েছিলেন। তবে, তাসকিনকে নিয়ে কোনো রকমের ঝুঁকি নিতে রাজি নন হাথুরুসিংহে।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে জহুর আহম্মেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে গণমাধ্যমের সামনে এই বিষয়ে কথা বলেন তিনি। তাসকিন আহমেদকে এখনই টেস্ট খেলতে দিতে চান না হাথুরুসিংহে। কাল জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তাসকিনকে নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তাঁর পাল্টা প্রশ্ন, ‘ও কি কখনো চার দিনের ক্রিকেট খেলেছে? আপনাদের কি মনে হয়, কেউ একজন সরাসরি মাঠে নেমেই জাদু দেখিয়ে ফেলবে? না।’ মূলত এই বক্তব্যের পর থেকেই তাসকিনের দলে না থাকার পরিষ্কার আভাসটি পাওয়া যায়।

কিন্তু কোচের এই বক্তব্যের আগে তাসকিনকে টেস্ট স্কোয়াডের সম্ভাব্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে অনুশীলনও করতে দেখা যায়। এবং হঠাৎ করে নির্বাচকরা তাকে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচের স্কোয়াডেও নিয়ে আসেন। এদিকে, মোস্তাফিজুর রহমান ইনজুরিতে রয়েছেন। সঙ্গে যোগ হয়েছে মোহাম্মদ শহীদের চোট। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে রুবেল হোসেনকে রাখা হলেও নির্বাচকরা তার অফফর্ম নিয়ে চিন্তিত। তাই তাসকিনের উপর কিছুটা দায়িত্ব দিতে চেয়েছিল নির্বাচকরা।

তবে, বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে হাথুরুসিংহে জানান, ‘তাসকিন তার ক্যারিয়ারে এখনও টানা চারদিন মাঠে বোলিং-ফিল্ডিং করেনি এবং ১৫ ওভার করে বোলিংও করেনি। আপনি যদি সম্প্রতি কোনো চারদিনের ম্যাচ না খেলেন তাহলে আপনাকে দিয়ে দীর্ঘ পরিসরের কথা চিন্তা করা যাবে না। কারণ ১৫ ওভার বোলিংয়ের পাশাপাশি পুরোদিন ফিল্ডিং আপনার জন্য হবে নতুন অভিজ্ঞতা। তাই এটা তাসকিনের জন্যও একেবারেই নতুন। আমি কারো ক্যারিয়ার ধ্বংস করতে চাই না।’

২১ বছর বয়সী এই পেসার প্রসঙ্গে কোচ আরও যোগ করেন, ‘আপনারা হয়তো ভাবছেন তাসকিন সীমিত ওভারে ভালো করলেও সে টেস্টে নেমে ম্যাজিকাল কিছু করবে। এমনটি মোটেও না। বরং সেটি তার ক্যারিয়ারের জন্য হুমকি।’’

এবং শেষ পর্যন্ত কোচের ইচ্ছা স্বরুপই টেস্ট দলে রাখা হলোনা তাসকিনকে। এতে করে টেস্ট দলের পেস আক্রমণে ধার না বাড়ার আশংকা থাকলেও তাসকিনের ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে কোচ ও নির্বাচকদের সিদ্ধান্তকেই এখন সাধুবাদ জানাচ্ছেন টাইগার ক্রিকেটভক্তরা।

এ সম্পর্কিত আরও