Mountain View

দারিদ্র্য বিমোচনে বাংলাদেশের সাফল্য সারাবিশ্বের জন্য শিক্ষণীয়

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৬ at ১০:০১ পূর্বাহ্ণ

full_1717050426_1476755453

আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য বিমোচন দিবসে ঢাকায় এসে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে বাংলাদেশের সাফল্য সারাবিশ্বের জন্য শিক্ষণীয়, অন্যদের জন্য অনুসরণীয়। ঠিক এভাবেই বাংলাদেশকে মূল্যায়ন করলেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম।

আগামী দিনের জন্যও শুভকামনা জানিয়ে বললেন, ‘এগোও বাংলাদেশ, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ।’

বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট ঢাকায় এসে নতুন সহায়তারও ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, অপুষ্টি রোধে বাংলাদেশকে আগামী তিন বছরে ১০০ কোটি ডলার পর্যন্ত সহায়তা দেবে বিশ্বব্যাংক। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সহায়তা বাড়ানো হবে। আজ মঙ্গলবার সফরের শেষ দিনে জলবায়ু পরিবর্তনে সহায়তার পরিমাণ ঘোষণা করবেন তিনি।

পদ্মা সেতুর অর্থায়ন নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের ঢাকা সফর এবং বাংলাদেশকে বিশ্ববাসীর সামনে অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে তুলে ধরার কারণে সে পরিস্থিতির অবসান হয়েছে বলে অনেকে মনে করেন। বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতুতে ১২০ কোটি ডলার অর্থায়ন করতে চেয়েছিল। দুর্নীতির অভিযোগকে কেন্দ্র করে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে টানাপড়েনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার এখন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করছে।

গতকাল সোমবার বিকেলে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে দারিদ্র্য বিমোচন দিবসের মূল অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বব্যাংকের প্রশংসা বাংলাদেশের প্রচেষ্টাকে আরও এগিয়ে নেবে বলে মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে জিম ইয়ং কিম বলেন, অতিদারিদ্র্য কমাতে বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা অন্য দেশ যাতে কাজে লাগাতে পারে, সে জন্য ‘বহুপক্ষীয় দাতা তহবিল’ গঠনের পরিকল্পনা করেছে বিশ্বব্যাংক। কিম বলেন, বাংলাদেশ নাটকীয়ভাবে অতিদারিদ্র্য কমিয়ে আমাদের মধ্যে আশা জাগিয়েছে। বিশ্বব্যাংকের প্রত্যাশা, এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে এবং অন্যান্য দেশ বাংলাদেশকে অনুসরণ করবে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View