Mountain View

টাঙ্গাইলে লেবু চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে বেকার যুবসমাজ

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৬ at ৫:৩২ অপরাহ্ণ

মোঃনাজমুল হাসান, টাঙ্গাইলঃ টাঙ্গাইলে লেবু চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে বেকার যুবকেরা। তবে বিপুল পরিমাণ লেবুর বিপণন নিয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে চাষিদের। এ অবস্থায় সরকারি উদ্যোগে, একটি প্রোসেসিং সেন্টার নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন তারা।14800816_1766054013648363_1703658849_n

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার, সখিপুর ও মধুপুরসহ বেশ কয়েকটি উপজেলায় সমতল ও পাহাড়ি জমিতে চাষ করা হয় কাগজি, এলাচি ও কলম্বোসহ বিভিন্ন জাতের লেবু। চারা রোপণের ১৪ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে এসব গাছে ফলন আসতে শুরু করে। আর প্রতিটি গাছ থেকে লেবু পাওয়া যায় অন্তত ৫ থেকে ৭ বছর পর্যন্ত। জমিতে চারা রোপণের পর সামান্য পরিচর্যা ছাড়া বাড়তি কোনো খরচ না থাকায় লেবু চাষ করে লাভবান হচ্ছে জেলার বেকার যুবকেরা।

তবে বিপুল পরিমাণ লেবুর বিপণন নিয়ে বিপাকে পড়ছেন লেবু চাষিরা। উৎপাদিত এসব লেবু বিক্রি করা হয় স্থানীয় বাজারগুলোতে। আর পাইকাররা স্বল্পমূল্যে তা কিনে নিয়ে যায় রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। তবে বিপুল পরিমাণ লেবুর ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে, অচিরেই সরকারি উদ্যোগে টাঙ্গাইলে একটি প্রোসেসিং সেন্টার নির্মাণের কথা জানালেন, জেলার কৃষি বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তা।

টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আবুল হাশিম বলেন, ‘আশা করি আগামী জানুয়ারি থেকে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। তখন চাষি ভাইয়েরা তাদের কাছে বিক্রি করতে পারবে। পরে এই রস তারা সংগ্রহ করে চকলেট ও জুস তৈরি করবে।’ কৃষি বিভাগ জানায়, এ বছর জেলায় ৩ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের লেবুর চাষ করা হয়েছে। আর উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২২ হাজার মেট্রিক টন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View