Mountain View

আ. লীগের ২০তম সম্মেলন: বর্ণিল সাজে সেজেছে ঢাকা

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৯, ২০১৬ at ১২:২১ অপরাহ্ণ

full_31430414_1476856761

তিন দিন পরই হতে চলেছে বাংলাদেশের বৃহৎ এবং পুরাতন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম সম্মেলন। এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে এবারই প্রথম সর্বোচ্চ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। বর্ণিল সাজে সেজেছে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ‌্যানসহ পুরো রাজধানী।

এবারের সম্মেলনের স্লোগান ঠিক হয়েছে- ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলেছি দুর্বার, এখন সময় বাংলাদেশের মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার’।

আগামী ২২-২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় কাউন্সিলকে ঘিরে সম্মেলনস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ‌্যানে চলছে সাজসজ্জার কাজ। দক্ষিণ পাশে নৌকার মত দেখতে দেড়শ ফুট কাঠের কাঠামোর উপর বিশাল আকৃতির মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। নৌকাসদৃশ এই মঞ্চে দুটি স্তর থাকছে।

মঞ্চ ও সাজ সজ্জা উপ-কমিটির একজন সদস্য বলেন ‘উপরের স্তরে দলের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনাসহ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস‌্যরা বসবেন। নিচের স্তরটিতে সাংস্কৃতিক পরিবেশনার জন্য রাখা হয়েছে’। বিদেশি অতিথিদের জন্য মঞ্চের সামনে বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাদের পেছনে অতিথি, কাউন্সিলর ও পর্যবেক্ষক মিলিয়ে প্রায় ২০ হাজার জনের আসন ব‌্যবস্থা থাকছে।

সম্মেলনের জন‌্য সোহরাওয়ার্দী উদ‌্যান প্রস্তুত করার কাজ প্রায় শেষের দিকে। এখন শেষ মুহূর্তের কাজ চলছে।

সোহরাওয়ার্দী উদ‌্যানের উত্তরের গেইটে তৈরি হয়েছে তোরণ। বাকি পাঁচটি গেইটও রঙিন পতাকায় সাজানো হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শেখ হাসিনার ছবি শোভা পাচ্ছে গেইট থেকে মঞ্চ পর্যন্ত।

শিশু পার্কের পাশের গেইটে তৈরি হয়েছে বড় তোরণ। এই পথ দিয়ে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা প্রবেশ করবেন। বিদেশি অতিথিরাও এই পথ ব্যবহার করবেন। ভিআইপি অতিথিদের জন‌্য ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের গেইটটি রাখা হয়েছে।

জানা যায়, মঞ্চের পেছনে নেত্রীর বিশ্রাম নেওয়ার জন্য বিশ্রাম কক্ষ করা হয়েছে। বিদেশি অতিথিদের জন্যও মঞ্চের পেছনে বিশ্রাম নেওয়ার জন্য আলাদা কক্ষ ও শৌচাগার করা হয়েছে।

মঞ্চের দুপাশে আওয়ামী লীগের ৭৮টি সাংগঠনিক জেলা কমিটির নেতাদের দলীয় পতাকা উড়ানোর জন‌্য ৭৮টি স্ট‌্যান্ড রাখা হয়েছে। মঞ্চ এবং আশপাশের ২৮টি এলিডি পর্দায় পুরো অনুষ্ঠান প্রদর্শিত হবে।

পুরো উদ্যান এলাকা ওয়াইফাইয়ের আওতায় থাকবে। পুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ রাখা হয়েছে মঞ্চের বাম পাশে।

এরমধ্যে সম্মেলনের প্রচার-প্রচারণা এগিয়ে চলছে। সম্মেলনকে ঘিরে নেতাকর্মীদের ব্যস্ততার শেষ নেই। সম্মেলনকে স্বার্থক এবং সুন্দর করতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে।

আওয়ামী লীগের খসড়া ঘোষণাপত্র ২০২১ থেকে ২০৪১ সাল পর্যন্ত উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে সাজানো হয়েছে। আসন্ন ২০তম সম্মেলন উপলক্ষে প্রণীত ঘোষণাপত্রে ১০টি খাতে করণীয় নিয়ে দিকনির্দেশনা থাকছে।

এতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন, সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড এবং পরিকল্পনার চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। টেকসই উন্নয়ন, ব্লু ইকোনমির প্রতি দেয়া হয়েছে বিশেষ গুরুত্ব। এছাড়া মেগাপ্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের পাশাপাশি ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি থাকছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View