Mountain View

কর্ণফুলী টানেল; সার্বিক তাদরকিতে দেশি-বিদেশি ৬ পরামর্শক

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৯, ২০১৬ at ৮:৩১ অপরাহ্ণ

full_1741862734_1476886954

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তলদেশে দেশের প্রথম টানেল নির্মাণ কাজের তদারকি এবং নকশা রিভিউ করবে দেশি-বিদেশি ছয়টি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান। বুধবার প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে এ সংক্রান্ত চুক্তি করেছে সেতু বিভাগ।

২৯১ কোটি টাকার এ চুক্তির মেয়াদ পাঁচ বছর। সেতু ভবনে অনুষ্ঠিত চুক্তি সই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

কর্ণফুলী সেতুতে মূল পরামর্শক হিসেবে কাজ করবে অস্ট্রেলিয়ার এসএমইসি ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেড এবং ডেনমার্কের সিওডব্লিউআই। সহযোগী হিসেবে কাজ করবে ওভিই-এআরইউপি অ্যান্ড পার্টনার হংকং লিমিটেড এবং বাংলাদেশের তিন প্রতিষ্ঠান এসিই কনসালটেন্ট লিমিটেড, ডেভলপমেন্ট কনসালটেন্ট লিমিটেড এবং স্ট্র্যাটেজিক কনসালটিং কোম্পানি লিমিটেড।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রকল্পের পরামর্শক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলো পুরো নির্মাণ কাজের তদারকি ও বিস্তারিত নকশা রিভিউ করবে।

চট্টগ্রাম শহরের মাঝ বরাবর বয়ে চলা কর্ণফুলী নদীর তলদেশে দেশের প্রথম টানেল নির্মাণ করা হচ্ছে। এ টানেল নদীর তীরকে যুক্ত করবে। গত ১৪ অক্টোবর চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ঢাকা সফরে এই প্রকল্পের ঋণচুক্তি হয়। টানেল নির্মাণে চীনের সঙ্গে একটি কাঠামো চুক্তিও হয়েছে।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, কর্ণফুলী টানেল নির্মাণে প্রায় সাড়ে আট হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে। এর মধ্যে ৭০ কোটি ৫৮ লাখ ডলারের ঋণের জন্য চীনের এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। চীনের সঙ্গে জি টু জি ভিত্তিতে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে।

তিনি জানান, দুই লেন বিশিষ্ট দুটি টিউবের মাধ্যমে চারলেনের এ টানেল নির্মিত হবে। সাংহাইয়ের আদলে চট্টগ্রামকে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ হিসেবে গড়ে তুলতে টানেল নির্মাণ করা হচ্ছে। টানেলের দৈর্ঘ্য হবে প্রায় তিন কিলোমিটার। পুরো প্রকল্পের দৈর্ঘ্য ৯ দশমিক ২৬৬ কিলোমিটার।

চুক্তিতে নিজ নিজ পক্ষে সই করেন সেতু বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী কবীর আহম্মেদ এবং পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে গ্যাভিন হ্যারং স্ট্রিড।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেতু সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম, কর্ণফুলী টানেল প্রকল্পের পরিচালক ইফতেখার কবির প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View