Mountain View

পাঁচ রিভিউতে ‘নটআউট’ মঈন আলী!

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২০, ২০১৬ at ২:৪৮ অপরাহ্ণ

 ‘ক্রিকেট ইজ আ ফানি গেম’ এ কথাটির মর্ম আজকেই বুঝি টের পেলো বাংলাদেশ! কারণ চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে একপ্রকার মজার ঘটনাই মঞ্চস্থ হলো চট্টগ্রামে।  যেখানে আউট হয়েও ‘নটআউট’ রয়েছেন মঈন আলী।  আর বাংলাদেশ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বলেই তিনবার এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন মঈন। আর তিনবারই আঙুল তুলেছেন আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। তবে ভাগ্যকে সঙ্গে পাওয়া ইংলিশ অলরাউন্ডার তিনবারই রিভিউ চেয়ে বেঁচে গিয়েছেন।

চট্টগ্রাম টেস্টে এখন পর্যন্ত মোট পাঁচবার রিভিউর সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে মঈন আলীর। প্রথমে তাইজুল ইসলাম এবং পরে মেহেদী হাসান মিরাজের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলে রিভিউ চান অধিনায়ক মুশফিক। এখানে মঈন আলীর পক্ষেই সিদ্ধান্ত গিয়েছে। এমন পাঁচটি সুযোগ শেষ পর্যন্ত ক্যারিয়ারের অষ্টম হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়ে অপরাজিত আছেন ইংলিশ এই অলরাউন্ডার।

সেদিক থেকে রেকর্ডই গড়েছেন বাঁহাতি এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। কারণ এরআগে কোনও ব্যাটসম্যানই এতোগুলো রিভিউ নিয়ে সফল হননি।

প্রথম রিভিউটি ছিল এলবিডব্লুর। তাইজুল ইসলামের একটি ডেলিভারি ৮ রানে ব্যাট করতে থাকা মঈনের পায়ে লাগলে নিশ্চিত আউট ভেবে রিভিউ নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। অবশ্য এই রিভিউতে আম্পায়ারের দেওয়া নট আউটের সিদ্ধান্তই সঠিক হিসেবে প্রমাণিত হয়। তবে এর পরের তিনটি রিভিউতে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত ভুল প্রমাণিত হয়েছে। সাকিবের করা ৬ বলের মধ্যে তিনবার এলবিডব্লুর আবেদন হয়। তিনবারই বাংলাদেশের ফিল্ডারদের আবেদনে সাড়া দেন ফিল্ড আম্পায়ার। মঈন প্রতিবারই রিভিউ নিয়ে নিজেকে রক্ষা করেছেন।

মঈন আলীর পঞ্চম রিভিউটি আসে মেহেদী হাসান মিরাজের ওভারে। কিন্তু বলটি লাইনের বাইরে থাকায় ফিল্ড আম্পায়ার বাংলাদেশের ফিল্ডারদের আবেদনে সাড়া দেননি। মুশফিক রিভিউ চাইলে আম্পায়ার মঈন আলীর পক্ষে রায় দেন। সব মিলিয়ে বৃহস্পতিবার রিভিউ নিয়ে এক প্রকার নাটকই মঞ্চস্থ হয়েছে জহুর আহমেদের ২২ গজে। এমন নাকটের পর খুব স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম টেস্টের আম্পায়ারিং নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে!

এ সম্পর্কিত আরও