রাবি ছাত্র হত্যা মামলায় কারাগারে রুমমেট

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৩, ২০১৬ at ৬:০৩ অপরাহ্ণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মোতালেব হোসেন লিপু (২২) হত্যা মামলায় তার রুমমেট মনিরুল ইসলামকে (২৩) গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। রোববার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।full_1927811446_1477220928

মনিরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তার বাড়ি রাজশাহীর তানোরে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব আবদুল লতিফ হলের ২৫৩ নম্বর কক্ষে লিপুর সঙ্গে থাকতেন।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নগরীর মতিহার থানার ওসি (তদন্ত) অশোক চৌহান বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে মনে হয়েছে লিপু হত্যার সঙ্গে তার রুমমেট মনির জড়িত। লিপুর পরিবারের সদস্যদরাও জানিয়েছে তার সঙ্গে রুমমেটের সম্পর্ক ভালো ছিল না। এজন্য মনিরুলকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরে রাজশাহীর মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে তোলা হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। তবে এসময় মনিরুলের রিমান্ডের আবেদন করেনি পুলিশ।

গত ২০ অক্টোবর সকালে নবাব আবদুল লতিফ হলের ডাইনিংয়ের পাশের একটি নর্দমায় লিপুর লাশ পাওয়া যায়। ওই দিনই লিপুর চাচা বশির মোল্লা বাদী হয়ে মতিহার থানায় অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সেই মামলাতেই আজ মনিরুলকে গ্রেফতার দেখানো হল। এর আগে লিপুর লাশ উদ্ধারের পরই তার রুমমেট মনিরুল, বন্ধু প্রদীপ, হলের নিরাপত্তা প্রহরী মো. মনির ও সাইদুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ২১ অক্টোবর সকালে রুমমেট মনিরুল ছাড়া সবাইকে ছেড়ে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, ‘হত্যাকাণ্ডের’ শিকার লিপু ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার মকিমপুর গ্রামের বদর মোল্লার ছেলে। এ হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে ২২ অক্টোবর থেকে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এ সম্পর্কিত আরও