Mountain View

কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের অবৈধ লেনদেনে খতিয়ে দেখতে কমিটি গঠন

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৬, ২০১৬ at ৮:২৩ অপরাহ্ণ

contane

কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স এর অবৈধ কর্মকাণ্ড খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

এর আগে আজ (বুধবার) অক্টোবর ২৬ কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স এর এই অবৈধ কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে ‘অবৈধ লেনদেনে ফেঁসে যাচ্ছে কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স’ পত্র-পত্রিকায় অনলাইনে আসার পরপরই বিমা প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয় বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

আজ (বুধবার) বেলা সোয়া ২টায় প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এম শেফাক আহমেদ (একচ্যুয়ারি) কন্টিনেন্টাল এর অনিয়ম খতিয়ে দেখতে আইডিআরএ’র সদস্য জুবের আহমেদ খানকে প্রধান এবং সুলতান উল আবেদীন মোল্লাকে সদস্য করে একটি কমিটি গঠন করেন।

অবিলম্বে এ ব্যাপারে তদন্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের ব্যাপারে কমিটিকে নির্দেশনা দেন আইডিআরএ চেয়ারম্যান।

উল্লেখ্য, ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের নামে ৩৩ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেন করে বেসরকারি খাতের বিমা কোম্পানি কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।কোম্পানিটির এই অনিয়ম খতিয়ে দেখতে এর আগে আইডিআরএ বিশেষ অডিটর (বিশেষ নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান) নিয়োগ দেয়ারও সিদ্ধান্ত নেয়।

আইডিআরএ’র একটি সূত্র জানিয়েছে, নির্ধারিত ব্যয়ের চেয়ে এই টাকা বেশি খরচ দেখিয়ে শেয়ারহোল্ডারদের টাকা লোপাট করেছে কোম্পানির পরিচালনা-পরিষদ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ।

উল্লেখ্য, গত সাত (২০০৯ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত) বছরে ৮৭ কোটি ৬ লাখ টাকা ব্যবস্থাপনা ব্যয় দেখায় কোম্পানিটি। অথচ নিয়মানুসারে তাদের ৫৪ কোটি ৩৪ লাখ টাকার বেশি ব্যবস্থাপনা ব্যয় দেখানোর এখতিয়ার নেই। সে হিসেবে গত সাত বছরে ৩৩ কোটি ৩ হাজার টাকার বেশি অবৈধ লেনদেন করেছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ। যা বিমা আইন, ২০১০-এর ৬৩ ধারা ও বিমা বিধিমালা ১৯৫৮-এর লঙ্ঘন।

অবৈধ লেনদেনের মধ্যে ২০০৯ সালে ২ কোটি ৪৫ লাখ, ২০১০ সালে ৩ কোটি ২৬ লাখ, ২০১১ সালে ৩ কোটি ৪ লাখ, ২০১২ সালে ৪ কোটি ৬৯ লাখ, ২০১৩ সালে ৬ কোটি ৪৭ লাখ, ২০১৪ সালে ৬ কোটি ৬ লাখ এবং ২০১৫ সালে ৬ কোটি ৩৯ লাখ টাকা বেশি ব্যয় দেখানো হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও