যেখানে মুস্তাফিজকে ছাড়িয়ে গেলেন মিরাজ

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৬, ২০১৬ at ৭:২৪ অপরাহ্ণ

11

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলেছিলেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ। ইনজুরিতে আক্রান্ত না হলে ইংল্যান্ড টেস্টেও যে একাদশে থাকতেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। বাংলাদেশ ক্রিকেটের এই বিস্ময়বালককে ছাড়িয়ে গেলেন চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষিক্ত অফস্পিনার কাম অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ইনিংসেই ৬ উইকেট নিয়ে টেস্ট বোলারদের র‌্যাংকিংয়ে স্থান করে নিয়েছেন তিনি।

টেস্ট বোলারদের মধ্যে এখন ৬১তম মাত্র ১ টেস্ট খেলা মেহেদি। একটি বেশি টেস্ট খেলে কাটার মাস্টার আছেন বাংলাদেশি বোলার হিসেবে মেহেদির পরই। ১৫২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ‘দ্য ফিজ’ -এর র‌্যাংকিং ৭৯। মুস্তাফিজ দুই টেস্টের ২ ইনিংস খেলে ৫৮ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রামে নিজের অভিষেক টেস্টে বল হাতে চমক দেখান তিনি। ফলে ২৫৮ রেটিং নিয়ে ৬১নম্বর স্থানটি দখলে নিয়ে নেন টাইগারদের তরুন তুর্কি মিরাজ।

চট্টগ্রাম টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বল হাতে ৩৯.৫ ওভারে ৮০ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন মিরাজ। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের সপ্তম বোলার হিসেবে অভিষেক ম্যাচে ৫ বা ততোধিক উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখান তিনি। এছাড়া অভিষেক ম্যাচে সেরা বোলিং ফিগারের তালিকায় দ্বিতীয়স্থানেও নিজের নাম লেখান মিরাজ।

প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নিলেও, দ্বিতীয় ইনিংসে খুব বেশি উইকেট শিকার করতে পারেননি তিনি। ২০ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে মাত্র ১ উইকেট নেন মিরাজ। পুরো ম্যাচে ৭ উইকেট শিকারে প্রথমবারের মত বোলারদের র‌্যাংকিং তালিকায় শীর্ষ একশতে প্রবেশ করেন এই অফ-স্পিনার। প্রবেশ করেই ৬১তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন গতকাল ১৯ বছর বয়সে পা দেয়া মিরাজ।

এছাড়া বাংলাদেশের মধ্যে র‌্যাংকিং-এ উন্নতি হয়েছে সাকিব আল হাসান ও তাইজুল ইসলামের। চট্টগ্রাম টেস্টে ৭ উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। তাই দুইধাপ এগিয়ে র‌্যাংকিংয়ের ১৫ তম স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। ৬ ধাপ এগিয়ে ৩৬তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন তাইজুল। সিরিজের প্রথম টেস্টে ৪ উইকেট শিকার করেন এই বাঁ-হাতি স্পিনার।

এ সম্পর্কিত আরও