ঢাকা : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, সোমবার, ২:২৬ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

কোথায় ডিএনসিসি চাকরিচ্যুত নগর পরিকল্পনাবিদ?

স্ত্রী জানেন না তার স্বামী কোথায়। উত্তরা পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও বলছেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) চাকরিচ্যুত নগর পরিকল্পনাবিদ মো. আহমেদের সন্ধান করছেন তারা।

অথচ র‌্যাব ও বিমানবন্দর থানা পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা। আসলেই কোথায় চাকরিচ্যুত এই নগর পরিকল্পনাবিদ?

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) চাকরিচ্যুত নগর পরিকল্পনাবিদ মো. আহমেদের স্ত্রী নারগীস শামীমার দাবি- গত ২৩ অক্টোবর ভোর রাত পৌনে ৪টার দিকে তার স্বামীকে রাজধানীর উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টরের ৪ নম্বর রোডের ১৬ নম্বর বাসার ফ্ল্যাট-সি থেকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেয়া হয়েছে।

এ নিয়ে তিনি ওইদিন উত্তরা পূর্ব থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেছেন। জিডি নম্বর ১২৪২।

তবে র্যাব মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান  জানিয়েছেন, মুনসুরকে (৫২) ২০০০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে উত্তরা এক নম্বর সেক্টরের একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে মঙ্গলবারই বিমানবন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে উত্তরা পূর্ব থানার ওসি আবু বকর জিডির বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, ‘ঘটনার পর আমরা বিভিন্ন জায়গায় তার খোঁজে অভিযান অব্যাহত রেখেছি। তবে এখনও কোনও সন্ধান পাইনি।বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছেন এসআই শফিকুল ইসলাম।’

এসআই শফিকুল ইসলামের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি। উত্তরা পূর্ব থানার ডিউটি অফিসার উম্মে হানি বেগম বুধবার রাতে বলেন, মুনসুরের স্ত্রী নারগীস শামীমার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে সম্ভাব্য সব স্থানে অভিযান চলছে। এখনও তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

অন্যদিকে বিমানবন্দর থানার এসআই মামুনুর রহমান জানান, মুনসুরসহ দুইজন ইয়াবা ব্যবসায়ীকে র‌্যাব মঙ্গলবার তাদের থানায় হস্তান্তর করেছে। এরই মধ্যে তাদের আদালতে হাজির করে একদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। এখনও তাদের কোনো স্বজন থানায় যোগাযোগ করেনি।

নারগীস শামীমা জিডিতে উল্লেখ করেছেন, মুনসুর আহমেদ ঢাকা ডিএনসিসি থেকে গত মে মাসে চাকরিচ্যুত হন। ২৩ অক্টোবর ভোর রাত ৩টা ৪৫ মিনিটে তার বাসার নিচে ৪/৫ জন সাদা পোশাককারী ও দশজন র‌্যাবের পোশাক পরা লোক আসেন। ওই ব্যক্তিরা বাসার দারোয়ানকে বলে, তারা মুনসুরের ফ্ল্যাটে যাবে। দারোয়ান রাজি না হওয়ায় ওই ব্যক্তিরা দারোয়ানকে মারধর করে।

পরে দারোয়ান ওই ব্যক্তিদের তাদের ফ্ল্যাটে নিয়ে আসেন। তারা দরজা খুলতে দেরি করায় কুঠার দিয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তার স্বামীকে মারধর করে। পরে মুনসুরকে হাতকড়া পরিয়ে বাসা থেকে বের করে গাড়িতে তুলে নিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। অনেক খোঁজাখুজি করে কোথাও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

kidneped

সিরাজগঞ্জে অপহরণকারী আটক, ১২ দিনেও উদ্ধার হয়নি শিশুটি

সিরাজগঞ্জে নেশার টাকার জন্য জান্নাতুল খাতুন নামে ৪ বছরের এক শিশু কন্যাকে অপহরণের পর মাত্র …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *