ঢাকা : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, শনিবার, ৭:৪১ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
চলছে স্প্যানের লোড টেস্ট দৃশ্যমান হতে চলেছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হতে পারে! ১৭ বছর বয়সী আফিফ নেট থেকে মাঠে অত:পর গেইলদের গুড়িয়ে দিলেন (ভিডিও) রংপুর জেতায় ছিটকে গেলো কুমিল্লা-বরিশাল আইএস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইরাকে নিরাপত্তা বাহিনীর ১৯৫৯ সদস্য নিহত দুটি নৌকা, ২২ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠাল বিজিবি অন্ধকার পেরিয়ে যেভাবে আলোতে সাইদুল, জানুন সেই বিশ্ব জয়ের গল্প প্রতিবন্ধীদের সাথে নিয়েই এগিয়ে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী রামগঞ্জে ১১টাকার জন্য স্কুলছাত্রকে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন রোহিঙ্গাদের সহায়তা দেয়ার অনুমতি চাচ্ছে জাতিসঙ্ঘ : সাড়া দিচ্ছে না সরকার
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

পুষ্টিহীনতায় প্রতিবছর ৮ হাজার কোটি টাকার উৎপাদন হারাচ্ছে বাংলাদেশ

খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করলেও পুষ্টিহীনতার কারণে প্রতিবছর বাংলাদেশ প্রায় আট হাজার কোটি টাকার উৎপাদন হারাচ্ছে। বিশ্ব খাদ্য সংস্থার (ডব্লিউএফপি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে আসে।
বুধবার শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে ‘বাংলাদেশে খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি বিষয়ে কৌশলগত পর্যালোচনা’ শীর্ষক প্রতিবেদনটির মোড়ক উন্মোচন হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, নর্দান আয়ারল্যান্ডের আলস্টার ইউনিভার্সিটি অধ্যাপক সিদ্দিকুর রহমান ওসমানী এবং বিশ্ব খাদ্য সংস্থার চিফ অব স্টাফ জেমস হার্বে।
ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত কয়েক দশক ধরে বাংলাদেশ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন করলেও এখনও কিছু জায়গায় সমস্যা রয়ে গেছে। যেখানে বিপুল সংখ্যক জনসংখ্যা এখনও খাদ্য নিরাপত্তা ও ক্ষুধামুক্ত হতে পারেনি।
এই পুষ্টিহীনতার অন্যতম বড় কারণ হিসেবে বাল্য বিবাহকে দায়ী করা হয় প্রতিবেদনে। বলা হয়, বাল্যবিবাহের ফলে তাদের ঘরে যে সন্তান জন্ম নেয় সে অপুষ্টিতে ভোগে। এছাড়া বাবা-মা সাধারণত পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করতে পারে না। ফলে এর প্রভাব পড়ে তাদের সন্তানের ওপর।
আরো বলা হয়, বাংলাদেশের এক চতুর্থাংশ লোক ২০১৪ সালেও খাদ্য নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ছিল। যার সংখ্যা প্রায় চার কোটি। এর মধ্যে প্রচণ্ডভাবে খাদ্যাভাবে ছিল এক কোটি ১০ লাখ মানুষ।
অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, পুষ্টির ঘাটতি পূরণে সরকারের পক্ষ থেকে সহায়তা দেয়া হচ্ছে। এখনও আমরা পুষ্টির যোগান দিতে নানাভাবে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। বাচ্চাদের জন্য এক হাজার দিন পর পর্যন্ত পুষ্টি সহায়তা দেয়া হচ্ছে।
এদিকে পুষ্টির বৈষম্য বাড়ার পেছনে বণ্টন ব্যবস্থার দুর্বলতাকে দায়ী করেন নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের আলস্টার ইউনিভার্সিটি অধ্যাপক সিদ্দিকুর রহমান ওসমানী।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

faridpur-pic-01

পায়ের মোজা থেকে ৫৯ ভরি সোনা উদ্ধার

ফরিদপুরের মধুখালীতে ৫৯ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকারসহ হাবিবুর রহমান (৫৩) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *