‘আমি রাজনীতিতে সক্রিয় নই, আর পদও চাইনি’

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৮, ২০১৬ at ৭:৪৮ অপরাহ্ণ

full_1932984704_1477661746

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সোহেল তাজ তাঁর ফেসবুক পাতায় দেওয়া এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, রাজনীতিতে সক্রিয় না থাকার কারণে আমি কারও কাছে পদ চাইনি। আওয়ামী লীগের সম্মেলনের কারণে তিনি দেশে ফেরেননি।

আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে সোহেল তাজকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়ার আলোচনা ছিল। সম্মেলনের ঠিক আগ মুহূর্তে টানা দুদিন দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে দেখাও করেন তিনি। সম্মেলনে যোগ দেন গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর হিসেবে। সম্মেলনের পর সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সম্পাদকমণ্ডলীসহ মোট ৪৩টি পদে নেতাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে তাঁর স্থান হয়নি।

সোহেল তাজ তাঁর স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘আপনাদের মন্তব্য এবং পত্র-পত্রিকার কিছু সংবাদ পড়ে, আর গণমাধ্যমের কিছু সংবাদ দেখে আমার কাছে মনে হয়েছে যে অনেকের ধারণা, বিগত আওয়ামী লীগের সম্মেলনে আমাকে কোনো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে অনেক বিভ্রান্তিকর খবরও প্রকাশিত হয়েছে এবং এটাও প্রচারিত হয়েছে যে আমি দেশে ফিরেছি সম্মেলনের কারণে।

আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এসব ধারণা সঠিক নয়। আমি কোনো পদ কারও কাছে চাইনি এবং আশাও করিনি। কারণ, বর্তমানে আমি রাজনীতিতে সক্রিয় নই।’

চারদলীয় জোট সরকারের আমলে রাজপথে আন্দোলনে সক্রিয় থেকে অনেকের নজর কাড়েন সোহেল তাজ। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসন থেকে তিনি সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালের ৬ জানুয়ারি গঠিত মন্ত্রিসভায় সোহেল তাজকে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। তবে এর পাঁচ মাসের মাথায় ২০০৯ সালেই তিনি পদত্যাগ করেন।

এ সম্পর্কিত আরও