কেন স্কোয়াডে শুভাগত হোম?

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৯, ২০১৬ at ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ

suvagata-hom

গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশ নিয়ে শুরু থেকেই ছিল আলোচনা ও সমালোচনায়। প্রথম প্রশ্ন ছিল কেন এক পেসার? কারণ চট্টগ্রাম টেস্টের একাদশে থাকা পেসার শফিউল ইসলামকে ঢাকা টেস্টে দলে রাখা হয়নি। তাই খেলছেন একমাত্র পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি। বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এ ঘটনা দ্বিতীয়বার। তবে বড় প্রশ্ন ছিল শফিউল-এর পরিবর্তে কেন দলে শুভাগত হোম!

     এই টেস্টে দল ঘোষণার আগে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে রাখা হয়েছিল। দেশের প্রথম শ্রেণির মাত্র ১১ ম্যাচে এখনই ৭ সেঞ্চুরি করে ফেলার রেকর্ড মোসাদ্দেকের। কিন্তু শুভাগত’র উপরই ভরসা রাখলেন টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে দলের বিপর্যয়ে মাঠে নেমে ফের ব্যর্থ। ১৮ বলে নিজের নামের পাশে মাত্র ৬ রান যোগ করেই বিদায়। তাই প্রশ্নটা আরো জোরালো হলো! কয়েকজন ক্রিকেট বোদ্ধাকেও প্রশ্ন করা হয়েছিল। কিন্তু এই বিষয়ে তারা হেসে নীরব থাকতেই পছন্দ করলেন।

২০১৪ সালে টেস্ট অভিষেক শুভাগত হোম চৌধুরীর। ৬০টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৮ সেঞ্চুরি ও ২০ ফিফটিতে ৪০.৬৩ গড়ে ৩৪১৩ রান করা এই ক্রিকেটারকে দলে নেয়ার কারণ তার ব্যাটিং যোগ্যতা। বোলিংটাও খারাপ নয়।

প্রথম শ্রেণির ম্যাচে এ পর্যন্ত নিয়েছেন ১০৬টি উইকেটও। ময়মনসিংহের ২৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের টেস্ট অভিষেকের কারণ ছিল বোলিংও। কিন্তু এ পর্যন্ত ৭ টেস্ট খেলার সুযোগ পেয়েও নিজেকে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। বিশেষ করে ব্যাট হাতে। বল হাতেও আহামরি কিছু নয়, মাত্র ৭ উইকেট। ব্যাট হাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ ১৬ আর পরের ইনিংসে শূন্য। তার ১৪ ইনিংসের মাত্র একটি ফিফটি। সেটি ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। মাত্র ১৯.৯০ গড়ে করেছেন ২২৯ রান।

এ সম্পর্কিত আরও