ঢাকা : ২৭ এপ্রিল, ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ৭:২৭ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

জয় হত্যাচেষ্টার ষড়যন্ত্র: মাহমুদুরের জামিন বহাল

resize_1455427806প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণের চেষ্টা ও হত্যার ষড়যন্ত্র মামলায় দৈনিক আমার দেশ-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে হাই কোর্টের দেওয়া জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন আপিল বিভাগ খারিজ করে দিয়েছে।

প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেয়।

মাহমুদুরের এক আবেদনের চূড়ান্ত শুনানি করে বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জাফর আহমেদের হাই কোর্ট বেঞ্চ গত ৭ সেপ্টেম্বর জামিন দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষ ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে গেলে গত ১৮ সেপ্টেম্বর চেম্বার বিচারপতি জামিন স্থগিত করে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। সে অনুসারে বিষয়টি আপিল বিভাগের সোমবারের কার্যতালিকায় আসে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা। মাহমুদুর রহমানের পক্ষে ছিলেন এজে মোহাম্মদ আলী। তাকে সহায়তা করেন তানভীর আহমেদ আল আমিন।

আদেশের পরে তানভীর আহমেদ আল আমিন বলেন, “আদালত রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। ফলে এ মামলায় মাহমুদুর রহমানের জামিন বহাল থাকল।”

জয়কে যুক্তরাষ্ট্রে ‘অপহরণের লক্ষ্যে’ তার সম্পর্কে তথ্য পেতে এফবিআইয়ের এক এজেন্টকে ঘুষ দেওয়ায় দেশটির আদালতে গত বছর প্রবাসী এক বিএনপি নেতার ছেলের কারাদণ্ড হয়।

সেই রায়কে কেন্দ্র করে ঢাকায় করা এক মামলায় গত ১৬ এপ্রিল যায়যায়দিন পত্রিকার সাবেক সম্পাদক শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মাহমুদুর রহমানকেও এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

মাহমুদুরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আইনে অন্তত ৭০টি মামলা রয়েছে। ২০১৩ সালের ১১ এপ্রিল রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে মাহমুদুর কারাগারেই আছেন।

জয়কে ‘অপহরণ ও হত‌্যার ষড়যন্ত্রের’ এ মামলায় শফিক রেহমান সম্প্রতি উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পান।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Mountain View

Check Also

আবাহনীকে হারিয়ে ১০ লাখ টাকা বোনাস পেলেন জিয়া-রাজ্জাকরা

সূর্য তখন পশ্চিমে হেলে পড়েছে। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ শেখ জামালের হাতে। বেশ স্বচ্ছন্দে খেলছেন জিয়া আর …

Loading...