Mountain View

একি! বিপিএল শুরু না হতেই নাটক

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২, ২০১৬ at ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

rongpur-riders

আগামী শুক্রবার পর্দা উম্মোচন হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসরের। তবে শুরু হওয়ার আগেই বিতর্কের মুখে পড়েছে এ আসরটি। পাওনা নিয়ে বিপিএলের নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি রংপুর রাইডার্সের সঙ্গে শুরুতেই ঝামেলা হয়েছে খেলোয়াড়দের।

প্রথম দিন মিরপুরে অনুশীলন করতে এসে নির্ধারিত সময়ে অনুশীলন করেনি তারা। তবে পরে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন তাদের আশ্বস্ত করলে অনুশীলনে ফিরে যান দলটির ক্রিকেটাররা।

আজ বুধবার রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে উম্মোচিত হয় রংপুর রাইডার্সের জার্সি। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দলের প্রায় সব উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড়। তবে অনুশীলনের জন্য সে অনুষ্ঠানের মাঝপথ থেকেই চলে যান তারা; কিন্তু মিরপুর শেরেবাংলার একাডেমি মাঠে পৌঁছেও নির্ধারিত সময়ে অনুশীলন নামেনি রংপুরের ক্রিকেটাররা।এদিকে অগ্রীম দেড় কোটি টাকা আদায় করেই বিপিএল খেলতে আসছেন আফ্রিদি।খেলোয়াড়দের পাওনা নিয়ে বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো বারবার ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে। পাওনা পেতে দেশি খেলোয়াড়দের করতে হয়েছে আন্দোলন। বিদেশি খেলোয়াড়দের দ্বারস্থ হতে হয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির।

সেই তিক্ত অভিজ্ঞতার কারণে ক্রিকেটাররা এবার অনেক সতর্ক। আগে পেমেন্ট বুঝে নিয়েই মাঠে নামতে চাইছেন তারা।

তবে পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি যেন আরও এক ধাপ এগিয়ে। তিনি পুরো টাকা বুঝে না পেলে বাংলাদেশে আসবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন রংপুর রাইডার্সকে।

তার সঙ্গে চুক্তি দেড় কোটি টাকার। প্রথমে আংশিক পরিশোধ করতে চেয়েছিল রংপুর রাইডার্স।

কিন্তু তাতে রাজি হননি আফ্রিদি। পরে এক কোটি টাকা দিতে চাওয়া হয় এবং বাকি টাকা বাংলাদেশের আসার পর। আফ্রিদি তাতেও রাজি ছিলেন না। তাকে পেতে হলে পুরো দেড় কোটি টাকাই আগে পাঠিয়ে দিতে হবে, পরিষ্কার জানিয়ে দেন তিনি। আফ্রিদির কথা মেনেই মঙ্গলবার দেড় কোটি টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হয় তার অ্যাকাউন্টে।

আজ (বুধবার) বিকেলে আফ্রিদির ঢাকায় পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু ফ্লাইট জটিলতার কারণে তিনি আসতে পারেননি। তবে, বৃহস্পতিবার সকাল অথবা দুপুরের মধ্যে তিনি ঢাকায় পৌঁছাবেন। রংপুর রাইডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান  এ কথা জানিয়েছেন।

জানা গেছে আজ বেলা ২টায় অনুশীলন করার কথা ছিলে রংপুর রাইডার্সের। হোটেল লা মেরিডিয়ানে দল পরিচিতি সেরে মাঠে এসে অনুশীলনে নামার কথা ছিল। তবে মাঠের ক্রিকেটে নামার আগে নিয়ম অনুযায়ী ফ্র্যাঞ্চাইজিদের ৫০ ভাগ টাকা পাওয়ার কথা ক্রিকেটারদের। টাকা না পাওয়ায় অনুশীলন থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয় তারা।

এরপর সৌম্য সরকার, রুবেল হোসেন, আরাফাত সানি, মোহাম্মদ মিঠুনরা দ্বারস্থ হয় বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের। প্রায় আধা ঘণ্টা প্রধান নির্বাহীর রুমে বসে আলোচনা করলেন তারা। সেখান থেকে আশ্বস্ত হয়ে ঘণ্টাখানেক পর অনুশীলনে নামেন রংপুরের ক্রিকেটাররা।

এ প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাহীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টিকে অভ্যন্তরীণ ব্যাপার বলে এড়িয়ে যান। তবে দ্রুত বিষয়টি সমাধান হবে বলে জানান তিনি।

এ সম্পর্কিত আরও