Mountain View

ডিসেম্বর থেকে টাইগারদের জন্য এই নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে বিসিবি

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২, ২০১৬ at ১২:১৯ অপরাহ্ণ

20161102121048

স্পোর্টস ডেস্ক : সম্প্রতি মিরপুর শেরেবাংলা একাডেমির মাঠে দেখা গেল তিন বোলারের বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা নিচ্ছে বিসিবির বিশ্লেষক নাসির আহমেদ। বেশ কয়েকটি ক্যামেরা লাগিয়ে চলছিল এক অফ স্পিনার ও দুই বাঁহাতি তরুণ স্পিনারের পরীক্ষা। জানা গেল, তিনজনই অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপের জন্য প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া সদস্য।

২৩ সদস্যে প্রাথমিক দল নিয়ে বিকেএসপিতে চলছে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অনুশীলন। সেখান থেকে কোচ ও নির্বাচকদের চোখে এই তিন বোলারের অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ হওয়াতে তাদের একটু পরীক্ষা করে নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন নাসির আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘আসলে খুব গুরুতর কিছু না, এই অনূর্ধ্ব-১৯ দলের এই তিন স্পিনারের বোলিং নিয়ে কোচ একটু সন্দেহ করেছিল। তাই আমরা পরীক্ষা করে দেখছি। যেন দ্রুতই শুধরে নেয়া যায়।’

এই বছর অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ চলাকালে বাংলাদেশ দলে স্পিনার সঞ্জিত সাহা নিষিদ্ধ হন। এরপর ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও নিষিদ্ধ হন পেসার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানি। তাই বড় ম্যাচে বা টুর্নামেন্টে এই ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নড়েচড়ে বসেছে বিসিবি।

সেই ধারাবাহিকতায় এরই মধ্যে তৈরি হয়েছে বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটিও। এই কমিটি এরই মধ্যে প্রিমিয়ার লীগে সন্দেহের তালিকায় থাকা বোলারদের সনাক্ত করে কাজও শুরু করেছে তাদের অ্যাকশন শুধরে দিতে।

নাসির আহমেদ বলেন, ‘আমাদের উদ্দেশ্যই এটা যেন বড় আসরে বা ম্যাচে গিয়ে বোলারদের নিষিদ্ধ হওয়ার মতো ঘটনা না ঘটে।’

এরই মধ্যে বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা ও শোধরাতে বিসিবি উদ্যোগ নিয়েছে একটি ল্যাব তৈরি করার। জানা গেল, ল্যাবটি এই ডিসেম্বরেই যাত্রা শুরু করতে পারে।

এই বিষয়ে নাসির আহমেদ বলেন, ‘আমরা এখন যেভাবে পরীক্ষা করছি তার চেয়ে আরও উন্নত প্রযুক্তির প্রয়োজন। এরই মধ্যে আমরা ইংল্যান্ডে একজন এক্সপার্টের সঙ্গে কথা বলছি। আশা করি, উন্নত প্রযুক্তি নিয়ে ল্যাবটি ডিসেম্বর থেকেই যাত্রা শুরু করবে।’
—এম জমিন

এ সম্পর্কিত আরও