Mountain View

হালুয়াঘাটে চুরির সময় হাতে নাতে ধরা শ্রমিক দলের আহবায়ক আঃ গনি

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২, ২০১৬ at ৪:০৯ অপরাহ্ণ

received_1121716917942607হালুয়াঘাটে চুরির সময় জনতার হাতে ধরা খেলেন উপজেলা শ্রমিক দলের আহবায়ক আঃ গনি। বাড়ির মালিক উত্তর খয়রাকুড়ি গ্রামের মনোহারী ব্যবসায়ী ছালেহ্ মুসা সাংবাদিকদের জানান, আমি ব্যবসায়ী কাজে সদরে চলে আসি এবং আমার স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে স্কুলে চলে যান, এই সুযোগে আঃ গনি চুরির উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে আমার বাড়ির দেয়াল টপকে বাসার গ্রিল এর তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে আলমারী খুলে এলোমেলো করে ,এসময় পাশের বাড়ির মামুন শব্দ পেয়ে বিষয়টি এলাকার কিছু লোকজনকে জানায়, সবাই বাড়ির সামনে আসলে আঃ গনি বিষয়টি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এলাকাবাসী তাকে ঘিরে ধরে এবং গনধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ নিয়ে উপজেলা বিএনপির নেতাদের আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠে। হালুয়াঘাট উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আ.ন.ম সাদেকুর রহমান নঈম সাংবাদিকদের বলেন, আঃ গনি এলাকার একজন চিহ্নিত জুয়ারো ও চোর। ময়মনসিংহ থেকে হালুয়াঘাট এসে কিছু কিছু বিএনপির সংস্কারপন্থী ও পদবীধারী নেতাদের সরাসরি পৃষ্টপোষকতায় চিহ্নিত জুয়ারো ও চুর হয়েও শ্রমিক দলের মতো একটা বৃহৎ সংগঠনের উপজেলার আহবায়ক হয়েছে। আমি এই চোরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি এবং তাকে দল থেকে বহিস্কারের দাবী জানাচ্ছি। ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নূরুল আলম বলেন, উনি এলাকায় চুরা গনি নামে পরিচিত। আমি ছাত্রদলের সভাপতি থাকা অবস্থায় যখন চিহ্নিত জুয়ারো ও চুরকে শ্রমিক দলের মতো একটা বৃহৎ সংগঠনের উপজেলার আহবায়ক করা হলো তখন এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিলাম এবং জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি আবু সাঈদকে বিষয়টি অবহিত করেছিলাম। উপজেলা ছাত্রদলের বর্তমান সভাপতি লুৎফর রহমান সায়েম বলেন আমি এই চুরের শাস্তি দাবী করছি এবং দল থেকে তাকে বহিস্কারের দাবী জানাচ্ছি। এ বিষয়ে জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি আবু সাঈদ কে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, চুরি করতে ঘিয়ে উপজেলা শ্রমিক দলের আহবায়ক আঃ গনি আটক হয়েছে এটা আমি এখনি জানলাম। আমরা এই বিষয়ে নিয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো। হালুয়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম মিয়া বলেন, আঃ গনির বিরোদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে, তাকে চুরির মামলায় বুধবার আদালতে চালান করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View