ঢাকা : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, সোমবার, ১২:০১ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > ধর্ম ও জীবন > নামাজে বিশ্বনবী যেভাবে সেজদায় যেতেন, জেনে নিন সেই সুন্নতী তারিকায়

নামাজে বিশ্বনবী যেভাবে সেজদায় যেতেন, জেনে নিন সেই সুন্নতী তারিকায়

20161104061811
ইসলাম ডেস্ক: আমাদের চলা-ফেরা, জীবন যাপন সবই হবে বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর নিয়মনুযায়ী। ঠিক তেমনই নামাজের প্রতিটি কাজ হতে হবে তারই নিয়মানুযায়ী। কেননা তিনি বলেছেন, ‘তোমরা সেভাবে নামাজ আদায় কর; যেভাবে আমাকে পড়তে দেখেছো।’ সুতরাং নামাজের প্রতিটি রুকন আদায় করতে হবে সুন্নত তরিকায়।

যখনই সঠিকভাবে মানুষ নামাজ আদায় করে তখন সে নামাজ নিঃসন্দেহে আল্লাহর দরবারে কবুল হয়ে যায়। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সিজদার পদ্ধতি তুলে ধরা হলো-

যেভাবে সিজদায় যাবেন: হজরত ওয়ায়েল বিন হুজর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, ‘আমি দেখেছি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন সিজদায় যেতেন তখন তিনি উভয় হাত (মাটিতে) রাখার আগে তাঁর হাঁটুদ্বয় রাখতেন। আর যখন সিজদাহ হতে উঠতেন তখন হাঁটুর পূর্বে হাত উঠাতেন। (আবুদাউদ, নাসাঈ ও তিরমিজি)

ইমাম খাত্তাবি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেন, হাত আগে রাখার ব্যাপারে বর্ণিত হাদিসের চেয়ে এই হাদিসটি অধিক বিশুদ্ধ। আর এই পদ্ধতিটি মুসাল্লীদের জন্য অধিক সহজ এবং দেখতেও অধিক সুন্দর।

নামাজে বিশ্বনবির রুকুর পদ্ধতি ও দোয়া-সিজদায় যাওয়ার সময় জমিনের অধিক নিকটবর্তী অঙ্গ প্রথমে জমিনে পড়বে। তারপর তুলনামূলক অধিক নিকটবর্তী অঙ্গ জমিনে রাখবে। আবার সিজদা থেকে উঠার সময় জমিন থেকে শরীরের সবচেয়ে উপরের অঙ্গটি অন্যগুলোর আগে উঠবে। অতঃপর তার পরেরটি। সুতরাং মাথা যেহেতু জমিন থেকে সবচেয়ে উপরে তাই সবার আগে মাথা উঠবে, অতঃপর উভয় হাত, তারপর উভয় হাঁটু।

যেভাবে সিজদায় আদায় করবেন-রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কপাল ও নাকের ওপর সিজদাহ করতেন। সিজদাহ করার সময় তিনি কপাল ও নাক জমিনে ভালভাবে লাগাতেন। উভয় হাতের বাহুদ্বয়কে পার্শ্বদেশ হতে এমনভাবে আলাদা করে রাখতেন যে, তাঁর বগলদ্বয়ের শুভ্রতা দেখা যেত।

মাগরিব ও ইশা নামাজে বিশ্বনবির ক্বিরাআত-সিজদার সময় তিনি উভয় হাতকে তাঁর উভয় কাঁধ ওকান বরাবর রাখতেন এবং পিঠকে সোজা রাখতেন। উভয় পায়ের আঙ্গুল সমূহকে কিবলামুখী করে রাখতেন এবং উভয় হাতের তালু এবং আঙ্গুল সমূহকে ছড়িয়ে রাখতেন। আঙ্গুল সমূহের মাঝে বেশি ফাঁক রাখতেন না এবং একটিকে অন্যটির সাথে একেবারে মিলিয়েও রাখতেন না।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দেখানো নিয়মে যথাযথভাবে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এ সম্পর্কিত আরও

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *