ঢাকা : ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, বৃহস্পতিবার, ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বিভিন্ন জেলায় নাসিরনগরে হামলার প্রতিবাদ

lakshmipur-manab-bandhan-piব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুদের ওপর হামলার ঘটনায় বিভিন্ন জেলায় মানববন্ধন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন।

‘ইসলাম অবমাননার’ অভিযোগ তুলে গত ৩০ অক্টোবর নাসিরনগরে ১৫টি মন্দির ও হিন্দু সম্প্রদায়ের দেড় শতাধিক ঘরে ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়।

শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ কর্মসূচির খবর পাঠিয়েছেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রতিনিধিরা।

কুড়িগ্রাম

জেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় সকালে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচির মাধ্যমে প্রতিবাদ জানিয়েছে জেলা মহিলা পরিষদ, প্রচ্ছদ কুড়িগ্রাম, সাম্প্রতিক কুড়িগ্রাম, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদ, পূজা উদযাপন পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন।

কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহ্বায়ক শ্যামল ভৌমিক, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদের সভাপতি এসএম ছানালাল বকসী, জেলা জাসদের সভাপতি এমদাদুল হক, বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা জাহিদুল হক মিলু, আওয়ামী লীগ নেতা অলক সরকার ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অব্রাহাম লিংকন প্রমুখ।

বক্তারা সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। এছাড়া অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবি জানান।

চুয়াডাঙ্গা

জেলা শহরের শহীদ হাসান চত্বরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ।

কর্মসূচিতে পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার সিংহরায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার কুণ্ডু, উজ্জ্বল অধিকারী, কিশোর কুমার আগরওয়াল, মনোরঞ্জন বিশ্বাস, ললিত কুমার দাস, নিমাই রায়, যাদব কুমার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঝালকাঠি

সকালে ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ-সমাবেশের আয়োজন করে ঝালকাঠির হিন্দু-বৈদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদ। ঝিরিঝিরি বৃষ্টি উপক্ষো করে ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচিতে বক্তারা ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার দাবি করেন।

ঝিনাইদহ

সকালে শহরের পোস্ট অফিস মোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচি আয়োজন করে জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদ। ঘণ্টাব্যাপী কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পরিষদের জেলা শাখার সভাপতি নারায়ণ চন্দ্র বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুবীর কুমার সমার্দ্দার, সহ-সভাপতি সমীর কুণ্ডু, পূজা উদযাপন পরিষদ পৌর কমিটির আহ্বায়ক বিনয় কৃষ্ণ বিশ্বাস প্রমুখ।

বক্তারা সাম্প্রদায়িক সহিংসতার মূল উসকানিদাতাদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবি জানান। তাছাড়া সারাদেশে হিন্দুদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা ও তাদের নিরাপত্তার দাবি জানান।

লক্ষ্মীপুর

লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জাতীয় হিন্দু মহাজোট জেলা শাখা। বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা শহরের পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন জেলা মহাজোটের আহ্বায়ক সুদীপ কুমার পাল চন্দন, সদস্যসচিব কার্তিক সেনগুপ্ত, জেলা বিএমএ সভাপতি আশফাকুর রহমান মামুন, যুব মহাজোট নেতা গৌতম মজুমদার, রুপম কর, সম্ভু দাস, শিমুল দেবনাথ, টিটু দাস দাস প্রমুখ।

আরও উপস্থিত ছিলেন স্বর্ণকার সমিতির সভাপতি রবি কুরী, মানিক সাহা, প্রদীপ কুরী, পৌর ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর উত্তম দত্ত প্রমুখ।

বক্তারা অবিলম্বে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন।

মুন্সীগঞ্জ

মুন্সীগঞ্জে প্রতিবাদ হয়েছে পূজা উদযাপন পরিষদের ব্যানারে। মানববন্ধন হয়েছে শহরের প্রেসক্লাবের সামনে। কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ ও জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদের সভাপতি অজয় চক্রবর্তী।

উপস্থিত ছিলেন পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সমর ঘোষ, টঙ্গীবাড়ি উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নবীন কুমার রায়, শ্রীনগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লক্ষণ মণ্ডল প্রমুখ।

নেত্রকোনা

নেত্রকোনায় প্রতিবাদ হয়েছে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলা শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনের সড়কে মানববন্ধন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে।

মানববন্ধন চলাকালে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মঙ্গল সাহা রায় বলেন, “নাসিরনগরে হিন্দুদের ওপর হামলার ঘটনার দায় ইউএনও এড়াতে পারেন না। তাকে এর দায়ভার নিতে হবে।

“ইউএনওসহ স্থানীয় প্রশাসনের নীরব ভূমিকায় সেদিন যারা জড়িত ছিল তাদের চিহ্নিত করে শাস্তি দিতে হবে।”

নোয়াখালী

সকালে জেলা শহরের প্রধান সড়কে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্যপরিষদ আয়োজিত ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন সংহতি প্রকাশ করেছে।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের সভাপতি সুধীর সাহা, সাধারণ সম্পাদক বিনয় কিশোর রায়, নোয়াখালী পৌরসভার প্যানেল মেয়র রতন কৃষ্ণ পাল, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কিশোর চন্দ্র শীল, বাসদ (মার্ক্সবাদী) জেলা সমন্বয়ক দলিলের রহমান দুলাল, সিপিবি নেতা জাফর উল্লাহ বাহার, নোয়াখালী নাগরিক মোর্চার যুগ্ম আহ্বায়ক আনম জাহের উদ্দিন, ছাত্র-যুব ঐক্যপরিষদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক পাপ্পু সাহা প্রমুখ।

রাজবাড়ী

বেলা ১১টায় জেলা শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি চত্বরে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন হয়েছে। এ সসম আওয়ামী লীগ নেতা ফকীর আব্দুল জব্বার, আইনজীবী গণেশ নারায়ণ চৌধুরী, এস এম নওয়াব আলী, সফিকুল ইসলাম সফি, ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা রেজাউল করিম রেজা, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্যপরিষদের নেতা প্রদীপ্ত চক্রবর্তী কান্ত, স্বপন কুমার দাস, সুমন বিশ্বাস, মহিলা পরিষদের সভাপতি লাইলী নাহার প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বক্তারা হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। একটি কুচক্রী মহল দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম বন্ধে আইনি নোটিশ

ঢাবি প্রতিনিধি : প্রশ্নফাঁস ও অনিয়মের অভিযোগ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৬-২০১৭ সেশনের ‘ঘ’ ইউনিটের …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *