Mountain View

জাতীয়করণ হওয়া শিক্ষকদের ক্যাডারে মানা হবে না

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ৬, ২০১৬ at ২:২১ অপরাহ্ণ

জাতীয়করণ হওয়া কলেজশিক্ষকদের বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে অন্তর্ভুক্তি হওয়া মানতে রাজি নন বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি। জাতীয়করণ হওয়া শিক্ষকদের ননক্যাডারে অন্তর্ভুক্ত করা এবং তাঁদের চাকরি শুধু ওই জাতীয়করণ হওয়া কলেজেই সীমাবদ্ধ থাকার দাবি জানান তারা।full_531371480_1478418287

আজ রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান সমিতির নেতারা। এই দাবি পূরণে তাঁরা নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করবেন বলেও জানিয়েছেন।

সমিতির নেতারা জানান, তাঁরা জাতীয়করণের বিরোধিতা করছেন না, বরং বিষয়টি তাঁরা স্বাগত জানাচ্ছেন। তাঁদের মূল আপত্তি ওই সব কলেজের শিক্ষকদের বিসিএসে শিক্ষা ক্যাডারে অন্তর্ভুক্ত করা নিয়ে।

বর্তমান সরকার যেসব উপজেলায় কোনো সরকারি কলেজ নেই, সেসব উপজেলায় একটি করে বেসরকারি কলেজকে সরকারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতিমধ্যে কিছু কলেজকে সরকারি করা হয়েছে। এ ছাড়া দুই দফায় আরও ২২২টি কলেজকে সরকারি করার জন্য তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ৩১৫টির মতো বেসরকারি কলেজ জাতীয়করণ হওয়ার কথা। এসব কলেজে মোট শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় আট হাজার।

সংবাদ সম্মেলনে সমিতির নেতারা বলেছেন, তাঁরা কয়েকটি ধাপে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে বিসিএস ক্যাডারে অন্তর্ভুক্ত হন। এখন জাতীয়করণ হওয়া শিক্ষকেরা যদি সরাসরি ক্যাডারে অন্তর্ভুক্ত হন, তাহলে বিদ্যমান বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা জ্যেষ্ঠতা হারাবেন। এর ফলে নতুন প্রজন্মের মেধাবী শিক্ষকেরাও মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। বিসিএস শিক্ষা ক্যাডার আর কোনোভাবে মেধাবীদের আকর্ষণ করতে পারবে না। এ ছাড়া বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে বর্তমান প্রায় ১৫ হাজার শিক্ষক ‘সংখ্যালঘুতে’ পরিণত হবেন, যা ক্যাডারের শৃঙ্খলায় বিপর্যয় নিয়ে আসতে পারে।

সমিতির নেতারা আরো বলেন, জাতীয় শিক্ষানীতি অনুযায়ী বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারীকরণের জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা করতে হবে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন সমিতির মহাসচিব শাহেদুল খবির চৌধুরী। আরও বক্তব্য দেন সমিতির সভাপতি আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View