Mountain View

কাল থেকে মাঠ কাঁপাতে নামছেন টাইগার আশরাফুল

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১০, ২০১৬ at ৭:৫৯ অপরাহ্ণ

ashraful

চলছে বিপিএল। নতুন একটি আসরে অংশ নিতে যাচ্ছেন টাইগার ক্রিকেটার আশরাফুল। লাল-সবুজের জার্সিতে ফিরে আসতেই চান তিনি। দলে ফিরে লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডস (এলএমএস) ক্রিকেট লিগে খেলার অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান তিনি।

লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডস (এলএমএস) আন্তর্জাতিক অ্যামেচার ক্রিকেট লিগ আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠান। গত বছর এই লিগে বাংলাদেশের একটি দলের হয়ে মাঠে নামেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আশরাফুল। এই লিগের নির্দিষ্ট কিছু নিয়মকানুন রয়েছে।

তার মধ্যে অন্যতম শেষ ব্যাটসম্যান ব্যাট করতে পারা। তবে সিঙ্গেল নেয়া যাবে না। ডাবল অথবা বাউন্ডারি হাঁকাতে হবে। মূলত এ কারণেই নাম হয়েছে লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডস (এলএমএস)। আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে এলএমএস’র ২০১৬-১৭ মৌসুমের কর্পোরেট লিগ শুরু হচ্ছে। তার আগে আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির আমন্ত্রণে হাজির হন আশরাফুল। কাল থেকে মাঠ কাঁপাতে নামছেন টাইগার আশরাফুল।

‘এই লিগে খেলে আমার নতুন কিছু অভিজ্ঞতা হয়েছে। এখানে শেষ ব্যাটসম্যানকে একা ব্যাট করতে হয়। সিঙ্গেল নেয়া যায় না। দুই, চার অথবা ছয় হাঁকাতে হয়। সাব্বির, মুশফিকদের এই লিগের অভিজ্ঞতা থাকলে জাতীয় দলে তারা কাজে লাগাতে পারতো। নিজে স্ট্রাইক নিয়ে খেলতে পারতো। সামনে আমার যদি এমন সুযোগ আসে, তবে এই লিগের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর চেষ্টা করবো।’ বলেন আশরাফুল।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন দীপ্ত টিভির ক্রীড়া সম্পাদক অঘোর মণ্ডল, রেডিও ফুর্তির সিইও জনাব রেজাউল হক, এলএমএস বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিফাতুল ইসলাম, টাইটেল স্পন্সর বেস্ট ইলেকট্রনিক্স’র মার্কেটিং ম্যানেজার জনাব আজমাইন শাওন, কো-স্পন্সর ট্রাভেল বুকিংয়ের ডিরেক্টর নাইয়ান আসিফ। হসপিটালটি পার্টনার তেহারি অন হুইলস’র ডিরেক্টর জনাব তৌসিফ, ম্যান অব দ্যা ম্যাচের স্পন্সর স্টার টেক গ্রুপের (ইসেট এন্টি ভাইরাস) ডিরেক্টর জনাব রাকিব।

‘এলএমএস’ চালু হয় ২০০৫ সালে। লন্ডনে। বিজরোন বিগ্রস এবং ওয়েন গ্রেভ নামক দুই তরুণের হাত ধরে। ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ইতিমধ্যে তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছে। পূর্ণ সহযোগিতাও করছে। বাংলাদেশে এই লিগের দায়িত্বে আছেন রিফাতুল ইসলাম এবং হাসিব আহমেদ। রিফাতুল ‘এলএমএস’ ঢাকার ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। হাসিব এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর।

এ সম্পর্কিত আরও