ঢাকা : ২৪ মে, ২০১৭, বুধবার, ১০:০৪ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

কুড়িগ্রামে অপহৃত শিশু আল-আমিন উদ্ধার

এস.এম.আব্দুল্লা আল মামুন (উজ্জল),কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি; কুড়িগ্রামে পরিবারের সবাইকে চেতনানাশক ঔষধ স্প্রে করে অচেতন করে বিশিষ্ট ব্যবসায়ীর এগাড়ো মাস বয়সী শিশুপুত্র আল-আমিনকে অপহরণ করা হয়েছে। অপহরণের দীর্ঘ ১৮ ঘন্টা পর বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলার চৌবাড়ি বাজারের একটি দোকানের সামনে থেকে অচেতন অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ শিশু হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

এঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে স্বপনের খালাতো বোন রানী খাতুনকে (২০) আটক করেছে পুলিশ। এর আগে গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ব্যবসায়ীর শহরের মিস্ত্রীপাড়ার বাড়ি থেকে তার পুত্র আল-আমিনকে নিয়ে চম্পট দেয় অজ্ঞাত এক নারী।
শিশুটির পিতা আতাউল করিম স্বপন শহরের ঘোষপাড়াস্থ মিতা ইলেক্ট্রনিক্স এর মালিক। ধারণা করা হচ্ছে মুক্তিপন আদায়ের উদ্দেশ্যে আল-আমিনকে অপহরণ করা হয়ে থাকতে পারে। পুলিশী অভিযানের চাপে পড়ে অপহৃত শিশুকে তার গ্রামের বাড়ির সামনে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় অপহরণকারীরা।

শিশুটির পিতা ব্যবসায়ী আতাউল করিম স্বপন জানান- বুধবার রাতে স্বপনের পুত্র আল-আমিন (১১ মাস) ও কন্যা মেধাকে (৬) তার খালা রেখা বেগমের কাছে রেখে স্ত্রী রাখি আক্তার বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে ফিরে রাখি তার খালা রেখা ও কন্যা মেধাকে অচেতন অবস্থায় মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন।
সেখানে আল-আমিনকে দেখতে না পেয়ে সে চিৎকার করলে তাদের কিছুটা চেতনা ফিরে আসে। এরপর অনেক খোঁজাখুঁজির করেও শিশুটিকে বাসাতে আর পাওয়া যায়নি। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে অপহরণকারীরা তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার চৌবাড়ি বাজারের একটি দোকানের সামনে আল-আমিনকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে তার চাচাতো ভাই কবির উদ্দিন শিশুটিকে উদ্ধার করে তাদের খবর দেন।
স্বপনের প্রতিবেশী নাজমা আক্তার জানান- ঘটনার পর পরই তিনি বাড়ির সামন দিয়ে অপরিচিত এক নারীকে লাল কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে এক শিশু বাচ্চাকে নিয়ে যেতে দেখেছেন।
কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুস সোবহান স্বপনের খালাতো বোন রানী খাতুনকে আটক করার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান- খবর পেয়ে কামারখন্দ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটিকে হেফাজতে নেয়।
শিশুটিকে আনতে কুড়িগ্রাম থেকে শিশুটির পরিবারের লোকজন ও পুলিশের একটি টিম এখন সিরাজগঞ্জে। এছাড়াও ঘটনাটির অধিকতর তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

সন্ধ্যা বেলায় কোন ধরনের কার্য গুলো নিষিদ্ধ ?

কয়েক দশক আগেও, হিন্দু পরিবার গুলোতে প্রবীণরা সন্ধ্যার নেতিবাচক প্রভাবের ব্যাপারে সচেতন ছিলেন। শাস্ত্র অনুযায়ী …

আপনার-মন্তব্য