খুব দ্রুতই হবে ট্রাম্পের পতন

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১২, ২০১৬ at ১১:১১ অপরাহ্ণ

trumps

ভোটে জিতে ক্ষমতায় এসেছেন বটে। তবে বেশিদিন টিকবেন না।’‌ সদ্য নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে মন্তব্য মার্কিন ইতিহাসবিদ অধ্যাপক অ্যালান লিটম্যানের।

তার মতে, ‘‌নির্বাচনে ট্রাম্পের জয় নিশ্চিত, একথা আগেই বলেছিলাম। তবে ক্ষমতায় এলেও, বেশিদিন টিকবেন না তিনি। কারণ ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট করা নিয়ে রিপাবলিকানদের মধ্যেই মতভেদ রয়েছে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে একজন রক্ষণশীল, নিয়ন্ত্রণযোগ্য লোকই পছন্দ তাদের। সেক্ষেত্রে ট্রাম্প একেবারেই বেমানান। তাকে নিয়ন্ত্রণ করা একেবারেই অসম্ভব। আমি নিশ্চিত, কিছুদিনের মধ্যেই রিপাবলিকানদের সেই সুযোগ করে দেবেন ট্রাম্প। জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয় এমন কিছু করে বসবেন। যাতে রাজদ্রোহের অভিযোগ তুলে তাঁকে সরিয়ে দেবেন রিপাবলিকানরা।’‌

গত ৮ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র‌্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিন্টন জিতবেন বলে প্রায় সকলেই ধরে নিয়েছিলেন। কিন্তু ট্রাম্পের জয় নিশ্চিত বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন অধ্যাপক অ্যালান লিটম্যান। হয়েছেও তাই। কিন্তু ট্রাম্প জেতার পর থেকেই আমেরিকা জুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। গুগলে হামলে পড়েছেন মানুষ। বারবার একই প্রশ্ন করা হচ্ছে, ‘‌‌কীভাবে প্রেসিডেন্ট কে গদিচ্যুত করা যায়?‌’‌

সমীক্ষায় দেখা গেছে, হিলারি ক্লিন্টন হার স্বীকার করার পর ওই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা প্রায় ৫০০০ শতাংশ বেড়ে যায়। অধ্যাপক লিটম্যান ছাড়াও, ট্রাম্পকে সরিয়ে দেয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ উটাহ–র আইন বিভাগের অধ্যাপক লুইস পিটারসন।

এখন পর্যন্ত কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দেশদ্রোহের দায়ে সাজা কাটতে বা সরতে হয়নি। সাবেক দুই প্রেসিডেন্ট— অ্যান্ড্রু জনসন এবং বিল ক্লিন্টনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেও, মার্কিন সেনেটে রেহাই পেয়ে যান তারা। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই ইস্তফা দিয়েছিলেন রিচার্ড নিক্সন।

এ সম্পর্কিত আরও