নিউইয়র্কে হিজাব পরায় লাঞ্চিত বাংলাদেশি মুসলিম ছাত্রী

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৬ at ৪:২৩ অপরাহ্ণ

20161114161643

প্রবাস ডেস্ক: ডেমোক্রিট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে হারিয়ে আমেরিকার ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ৮ নভেম্বরের ভোটে জয়ী হবার চতুর্থ দিনেই হিজাব পরায় এক বাংলাদেশি কলেজ ছাত্রী নিউইয়র্কে হেইটক্রাইমের শিকার হন। তার নাম ফাহিম নিজাম। ১০ নভেম্বর কিউ ৪৩ বাসে করে তিনি কলেজে যাবার পথে এ ঘটনা ঘটে। খবর এনা।

আমেকিার প্রভাবশালী পত্রিকা ‘ডেইলি নিউজ’র রিপোর্ট থেকে জানা যায়, ফাহিমা বাসে করে ম্যানহাটনে হান্টার কলেজে যাচ্ছিলেন। বাসেই দুই জন শেতাঙ্গ আমেরিকান (স্বামী-স্ত্রী) তার কাছে এসে তাকে চিৎকার করে বলতে থাকে তার মাথা থেকে হিজাব খুলে ফেলার জন্য। তারা ফাহিমার সাথে চিৎকার-চেঁচামেচি করতে থাকে। বলতে থাকে, মাথা থেকে বিরক্তিকর এই জিনিস খুলে ফেল। ফাহিমা তার হিজাব না খুলেই প্রতিবাদ জানায়।

এই ঘটনা সে বাসায় এসেই তার পরিবারকে জানায়। পুরো ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয়। ফাহিমার এই ঘটনা নিউইয়র্কসহ লন্ডনের ডেইলি মিররসহ বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

ফাহিমের পরিবার বলছে, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয় হবার পরই এই ঘটনা ঘটলো। বিষয়টি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তদন্ত করছে।

প্রসঙ্গত, ফাহিমা নিউইয়র্কের বেলরোজে থাকেন এবং তার বাবা-মা বাংলাদেশ থেকে ইমিগ্র্যান্ট হয়ে আমেরিকায় এসেছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরও