ঢাকা : ২৯ মার্চ, ২০১৭, বুধবার, ৩:০৮ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে হাইকোর্টের রুল

700d7ee416c8fe1f99724da6dc3c83a2x600x400x14-24-300x225ষ্টাফ রিপোর্টারঃ NTRCA কর্তৃক বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান) শিক্ষক নিয়োগে উপবিধি যথাযথ বাস্তবায়নের একই সঙ্গে রিটকারীদের নিয়োগের নির্দেশনা কেন নয় তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬০ জন নিবন্ধনকারীর দায়ের করা এক রিটের আবেদনের প্রাথমিক শুনানী শেষে সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকি এবং বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ এর সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এ রুল জারি করেছেন।

এতে বলা হয়েছে NTRCA কর্তৃক বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান সমুহে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ ও প্রত্যায়ন বিধিমালা ২০০৬ ৯(২) উপবিধি অর্থাৎ সংশোধনী-২০১৫, ৫(২) উপবিধি এর যথাযথ ভাবে কেন অনুসরন করা হবেনা এবং একই সঙ্গে রিটকারীদের নিয়োগের নির্দেশনা কেন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্ট বিবাদী শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, NTRCA এর চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের কাছে চার সপ্তাহের সময় দিয়ে রুল জারি করা হয়েছে। রিটকারীদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া। রাষ্ট্র পক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান।

আদালতের আদেশের পরে এডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া বলেন, সরকার ২০০৫ সালে বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগর জন্য NTRCA গঠন করে। এরপর উক্ত NTRCA শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২০০৫ ইং সালে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ ও প্রত্যয়ন বিধিমালা প্রনয়ন করে এবং সর্বশেষ ২০১৫ ইং সালে সংশোধন করা হয়।

সম্প্রতি সারাদেশের বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১২৬১৯ টি শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয় NTRCA কিন্তু গত ৯ই অক্টোবর, ২০১৬ইং শিক্ষক নিয়োগের ফলাফলের তালিকা প্রকাশ করলে দেখা যায় ২০০৬ ইং সালের শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ ও প্রত্যয়ন বিধিমালার ৯(২) উপবিধি অর্থাৎ সংশোধনী ২০১৫, ৫(২) উপবিধি অনুসরন না করেই ফলাফল প্রকাশ করে এবং এই উপবিধি অনুসারে উপজেলা, জেলা, বিভাগ ও জাতীয় মেধা তালিকা না করেই ফলাফল প্রকাশ করে।

এমনকি মাত্র ২৩৯৩ জনকেই ঘুরেফিরে ১২৬১৯ পদে সিলেক্টেড করে তাই উক্ত ফলাফলে নানা অসংগতি দেখা যায়। তাই শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহনকারী সারাদেশে ৬০ জনের পক্ষে রীট দায়ের করলে প্রাথমিক শুনানী শেষে এই রুল জারী করেন হাইকোর্টের এই বেঞ্চ।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

দক্ষিণ এশিয়ার ‘সবচেয়ে ব্যয়বহুল’ শহর ঢাকা

দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর ঢাকা। একটি জরিপে উঠে এসেছে এ তথ্য। ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের …