ঢাকা : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, রবিবার, ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

সাব্বিরের মত করেই টি-টোয়েন্টি খেলতে হয়: শাহরিয়ার

shahriar-nafees

স্পোর্টস ডেস্ক, বিডি টুয়েন্টিফোর টাইমস  : বাংলাদেশের প্রথম টি টোয়েন্টি অধিনায়ক তিনি। বিপিএলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে গড়েছেন সেঞ্চুরি করার রেকর্ডও।  চলতি আসরের প্রথম ম্যাচে ৩৪ বলে ৫৫, গতকাল ৪৪ বলে ৬৩—এবারের বিপিএলে নিজেকে যেন নতুন করে চেনাচ্ছেন শাহরিয়ার নাফীস। এই বদলে যাওয়া ব্যাটিং, টি-টোয়েন্টি দর্শন নিয়ে কাল ম্যাচশেষে নানা কথা বলেন তিনি। আর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ৪ রানের রুদ্ধশ্বাস জয়ের পর ওই ম্যাচও নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন বরিশাল বুলসের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান

প্রশ্ন : এবারের বিপিএলে আপনার ধারাবাহিক ব্যাটিংয়ের নেপথ্যের কারণ কী?

শাহরিয়ার নাফীস : সব সময় চেষ্টা করি আমার খেলার উন্নতি করার। এখন ক্যারিয়ারে এমন একটা পরিস্থিতি যে, নিজেকে ধরে রাখতে পারলে আমি অনেক ওপরে চলে যাব। আর না পারলে পিছিয়ে যেতে হবে। শেষ দুই মাস তো জাতীয় দলের ক্যাম্পে ছিলাম। বিপিএল শুরুর আগে আমাদের দলেরও বিকেএসপিতে সাত দিনের একটা ভালো ক্যাম্প হয়েছে। চেষ্টা করেছি, খেলায় উন্নতি ধরে রাখার।

প্রশ্ন : টি-টোয়েন্টি ব্যাটিংয়ে কোন জিনিসটি গুরুত্বপূর্ণ?

শাহরিয়ার : সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাইন্ডসেট। রুম্মান (সাব্বির রহমান) যেভাবে ব্যাট করেছে, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটটা ঠিক এভাবেই খেলতে হয়। মরিয়া ধ্বংসাত্মক একটা ব্যাপার থাকবে। অবশ্যই এখানে পরিকল্পনা লাগে; কিন্তু চিন্তা করার খুব বেশি সুযোগ থাকে না। শটে আরেকটু পাওয়ার লাগবে, ইমপ্রোভাইজেশন থাকতে হবে। অনেক সাহস নিয়ে খেলা লাগে। আমি এখনো তা শিখছি। করছি কঠোর পরিশ্রম।

প্রশ্ন : আপনার দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বাঁধনহীন উদ্যাপনের কারণ কী?

শাহরিয়ার : এমনিতে মুশফিক খুব ঠাণ্ডা মাথার। খুব সম্ভবত বোলারের সঙ্গে ওর কোনো কথা হয়েছিল। সে জন্য হয়তো এমন কিছু করেছিল। আমি বাইরে ছিলাম বলে ব্যাপারটা বলতে পারব না। মুশফিকের সব সময় চেষ্টা থাকে ভালো করার। সেই চেষ্টা থেকে হয়তো এমন একটা আচরণ করেছে। মুশফিকের উদ্যাপনে ভুল কিছু দেখি না। ওর মাঠের আগ্রাসী ভাবটা দলকে জয়ের পথে রেখেছে।

প্রশ্ন : সাব্বিরের ব্যাটিংয়ের সময় ১৯২ রানকে জয়ের জন্য যথেষ্ট মনে হচ্ছিল?

শাহরিয়ার : তখন মনে হচ্ছিল, ২২০/২৩০ রান দরকার ছিল। তবে আমাদের বিশ্বাস ছিল, একটা উইকেট পেলেই খেলা ঘুরে যাবে। কারণ এই উইকেটে ব্যাটিং সহজ মনে হলেও আসলে তা নয়। এখানে নতুন ব্যাটসম্যানের এসেই শট খেলা কঠিন। ওই বিশ্বাসটার জন্যই হয়তো জিতেছি।

প্রশ্ন : নিজেদের ব্যাটিং ইনিংস শেষে নিশ্চয়ই জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন?

শাহরিয়ার : আমরা ফিল্ডিংয়ে নামার সময় মুশফিক বলেছে, এখানে ১৩০ রানও ডিফেন্ড করা সহজ আবার ১৯০ রান ডিফেন্ড করাও কঠিন হতে পারে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে জেতার আগে কখনো বলা যায় না জিতেছি। টেস্ট বা ওয়ানডে ক্রিকেটে কোনো পর্যায়ে গিয়ে আপনি হয়তো বলতে পারেন। এই কথাটা মুশফিক বারবার বলছিল—এই রান করে সন্তুষ্ট হওয়ার কিছু নাই। শেষ পর্যন্ত আমরা নার্ভ ধরে রাখতে পারায় জিতেছি।-কালেরকন্ঠ

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

৩ উইকেট নিলেন মাহমুদুল্লাহ

পিএসএলে আজ দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হলেন সাকিব-তামিমের পেশোয়ার জালমি এবং মাহমুদুল্লাহ’র কোয়েটা গ্লাডিয়েটরস।  টসে …