ঢাকা : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, শনিবার, ৪:২৫ পূর্বাহ্ণ
সর্বশেষ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

দেশে একদলের স্বেচ্ছাচারিতা চলছে: ফখরুল

  • 700d7ee416c8fe1f99724da6dc3c83a2x600x400x14
  • দেশে একদলের স্বেচ্ছাচারিতা চলছে: ফখরুল
  • ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে বর্তমানে একদলের স্বেচ্ছাচারিতা চলছে। এই অবৈধ সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে দিচ্ছে।

 

  • রোববার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।’বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ার প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। একই অভিযোগে সোমবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি।সংবাদ সম্মেলনে কর্মসূচি ঘোষণা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘একটি নিবন্ধিত দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল, যারা তিনবার রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে—সেই দল একটি জনসভার অনুমতি পায় না। এতে সহজেই বোঝা যায়, দেশে গণতন্ত্রের অবস্থান কোন জায়গায় এসে পৌঁছেছে।’তিনি বলেন, ‘জনসভা করা আমাদের মৌলিক ও সাংবিধানিক অধিকার। এ অধিকার আজ লঙ্ঘিত হচ্ছে। গোটা দেশে আইনের শাসন, ন্যায়বিচার বলতে কিছু নেই।’

    সমাবেশের অনুমোদন না দেওয়ায় সরকারের এ ধরনের আচরণের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মির্জা ফখরুল সোমবার রাজধানীর প্রতিটি থানায় ও সারাদেশের মহানগরী এবং জেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

    বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণে সংলাপে বসতে সরকারের প্রতি আবারও আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছি যে, রাজনৈতিক সংকট তৈরি হয়েছে, তা নিরসনের জন্য সংলাপের প্রয়োজন আছে। সরকার তাতে কর্ণপাত করেনি। আবারও বলছি, সময় শেষ হওয়ার আগে আপনাদের শুভবুদ্ধির উদয় হোক।’

    সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।

    এদিকে, নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল। কাছাকাছি অবস্থানে রাখা ছিল জলকামানের গাড়ি।

    প্রসঙ্গত, ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে বিএনপি ৭ অথবা ৮ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চেয়েও পুলিশের অনুমতি পায়নি। এরপর বিকল্প স্থান হিসেবে ৮ নভেম্বর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে বিএনপি ফের চিঠি দিলেও পুলিশ সে চিঠি পায়নি বলে জানায়। তবে পুলিশ ২৭টি শর্তে রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটশন মিলনায়তনে সভার অনুমতি দিলে তা প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি। ওই দিনই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১৩ নভেম্বর সমাবেশের ঘোষণা দিয়ে ডিএমপির কাছে আবার চিঠি দেয় তারা। এবারও অনুমতি না পাওয়ার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করে দলটি।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

0ccf8b71888c0b001e2a62ccc7eaadecx624x405x37

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে আবারও সেনা দাবি বিএনপির

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সবগুলো কেন্দ্র ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ বলে রিটার্নিং কর্মকর্তা চিহ্নিত করার পরিপ্রেক্ষিতে আবারও সেনা …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *