Mountain View

প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় কিশোরীর বাবাকে হত্যা

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৫, ২০১৬ at ১:৫৭ অপরাহ্ণ

মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানা এলাকায় এক কিশোরী প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাবা বিল্লাল হোসেনকে (৪২) কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার পারভেজ হোসেন ওরফে সুমন (২৫) এমন তথ্য জানিয়েছে বলে দাবি করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।images

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মিরপুরের পাইকপাড়ায় র‍্যাব-৪-এর কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান অধিনায়ক (সিও) লুৎফুল কবীর।

র‍্যাব-৪-এর সিও জানান, মানিকগঞ্জের শিবালয় থানা এলাকার বিল্লাল হোসেনের মেয়ে মোছাম্মাৎ সাবনুর (১৫) এসএসসি পরীক্ষার্থী। দীর্ঘদিন ধরে তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল একই এলাকার পারভেজ হোসেন ওরফে সুমন (২৫)। সুমনের বাবার নাম ইকলাস মাতবর।

লুৎফুল কবীর জানান, স্কুলে যাওয়া-আসার পথে সাবনুরকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত সুমন। সাবনুরকে প্রেমের প্রস্তাবও দিয়েছিল। কিন্তু তাতে সাড়া দেয়নি সাবনুর। এতে সুমন ও তার বন্ধু হাবিব (২২), আলিম (৩২) ও আসিক (১৮) বিল্লাল হোসেনের বাড়িতে গিয়ে তাঁকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসে। এর পর ২ নভেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে মাচাইন গ্রামের কালভার্টের কাছে বাজার থেকে সাইকেলে করে বাড়িতে ফেরার সময় বিল্লালকে মাথার পেছন থেকে চাপাতি দিয়ে আঘাত করা হয়। বিল্লাল মাটিতে লুটিয়ে পড়লে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে লাশটি খালে ফেলে দিয়ে সুমন ও তার বন্ধুরা চলে যায়।

লুৎফুল কবীর জানান, বিল্লালের হত্যাকাণ্ডের পর তাঁর স্ত্রী আফরোজা বেগম হরিরামপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর পর আসামিদের ধরতে মাঠে নামেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে রাজধানীর গাবতলী থেকে সুমনকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-৪।

র‍্যাবের এ কর্মকর্তা আরো জানান, সুমন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বিল্লালকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এ সম্পর্কিত আরও