শরীয়তপুরে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৫, ২০১৬ at ৫:৫৮ অপরাহ্ণ

15049798_1176728985730459_2069185775_nডামুড্যা (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি ॥শরীয়তপুর সদর উপজেলার দেওভোগ গ্রাম থেকে নাইম নামে ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রের বস্তাবন্দী গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ি সংলগ্ন একটি ডোবা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নাইম দেওভোগ গ্রামের নুরুল ইসলাম তালুকদারের ছেলে এবং বুড়িরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র। তার বাবা ঢাকার যাত্রাবাড়ি একটি মাছের আড়তে কাজ করে।

পালং মডেল থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাইম ৮ দিন ধরে বাড়ি থেকে নিখোঁজ ছিল। মঙ্গলবার সকালে বাড়ি সংলগ্ন ডোবা থেকে পঁচা গন্ধ বের হলে স্থানীয়রা গন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে কচুরিপানার ভেতর বস্তাবন্দী গলিত লাশ দেখতে পায়। সংবাদ পেয়ে, পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং দুপুর ২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহত নাইমের মা লুৎফা বেগম বলেন, এলাকায় আমাদের কোনো শত্রু নেই। আমার নিস্পাপ ছেলেকে কারা এমন নৃশংসভাবে হত্যা করেছে আমি জানিনা।

পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ খলিলুর রহমান বলেন, নাইমকে সম্ভবত ৭/৮ দিন আগে হত্যা করে কচুরিপানার নিচে লুকিয়ে রাখা হয়। তবে হত্যার কারণ সম্পর্কে কোনো তথ্য এখনও আমরা পাইনি। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

এ সম্পর্কিত আরও