ঢাকা : ২৩ জুলাই, ২০১৭, রবিবার, ২:৫৮ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

khaleda-zia-zail

১৫ আগস্ট ‘ভুয়া’ জন্মদিন পালনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম মাজহারুল ইসলাম এ পরোয়ানা জারি করেন। গ্রেপ্তারসংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মামলার বাদী ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রাক্তন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম গত ৩০ আগস্ট খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। ওই দিন আদালত ১৭ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন।

কিন্তু ওই দিন খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হওয়ায় মামলার বাদী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন। সেই দিনই আদালত আবেদনটি নথিভুক্ত করে মামলার বাদীর উপস্থিতি ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানার বিষয় আদেশের জন্য ২ নভেম্বর দিন ধার্য করেন। ২ নভেম্বর আদেশ পিছিয়ে আজ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির বিষয়ে আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছিলেন আদালত।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, খালেদা জিয়ার একাধিক জন্মদিন নিয়ে ১৯৯৭ সালে ১৯ ও ২২ আগস্ট দুই জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, তার ম্যাট্রিক পরীক্ষার নম্বরপত্র অনুযায়ী জন্মতারিখ ৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৪৬ সাল। ১৯৯১ সালে তিনি প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে একটি দৈনিকে তার জীবনী নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, তার জন্মদিন ১৯ আগস্ট, ১৯৪৫ সাল। এদিকে তার বিয়ের কাবিননামায় জন্মদিন ৪ আগস্ট, ১৯৪৪ সাল। সর্বশেষ ২০০১ সালে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট অনুযায়ী তার জন্মদিন ৫ আগস্ট, ১৯৪৬ সাল।

মামলায় বলা হয়, বিভিন্ন মাধ্যমে তার ৫টি জন্মদিন পাওয়া গেলেও কোথাও ১৫ আগস্ট জন্মদিন পাওয়া যায়নি। এ অবস্থায় তিনি ৫টি জন্মদিনের একটিও পালন না করে ১৯৯৬ সাল থেকে ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীর জাতীয় শোক দিবসে আনন্দ উৎসব করে জন্মদিন পালন করে আসছেন। শুধু বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সুনাম ক্ষুণ্ন করতে তিনি ওই দিন জন্মদিন পালন করেন।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনার-মন্তব্য