ঐক্যের ভিত্তিতে ইসি গঠনের আহ্বান খালেদার

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৮, ২০১৬ at ৫:৪৮ অপরাহ্ণ

malyস্টাফ রিপোর্টার :সকল রাজনৈতিক দলের ঐক্যের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। শুক্রবার বিকাল ৪টায় গুলশানের হোটেল ওয়েস্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।
 
নির্বাচন কমিশন গঠনে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী ও নিবন্ধিত সব দলের সঙ্গে আলোচনা করে একটি পাঁচ সদস্যের বাছাই কমিটি গঠনে রাষ্ট্রপতিকে আহ্বান জানান খালেদা জিয়া।
 
খালেদা জিয়া বলেন, ‘এই কমিশন হতে হবে সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল অথবা স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী প্রতিটি দলের ঐকমত‌্যের ভিত্তিতে।’
 
বাছাই কমিটির সদস্যদের সাবেক প্রধান বিচারপতি, আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি, অবসরপ্রাপ্ত সচিব, বিশ্ববিদ্যায়লের সাবেক অধ্যাপক ও দক্ষ যোগ্য নারীদের মধ্য থেকে নেয়ার প্রস্তাব দেন তিনি।
 
খালেদা জিয়া বলেন, জেলা জজের মর্যাদা সম্পন্ন, ন্যূনতম ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদমর্যাদার সম্পন্ন, সিনিয়র আইনজীবী, বিশিষ্ট নাগরিকদের মধ্য থেকে নির্বাচন কমিশনার নিযুক্ত হবেন।
 
তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মতামতের ভিত্তিতে দু’জন ব্যক্তিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং আটজন ব্যক্তিকে নির্বাচন কমিশনার পদে নিযুক্তির সুপারিশ করবে বাছাই কমিটি। এর মধ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদে দুজনের মধ্যে একজন এবং নির্বাচন কমিশন পদে আটজন থেকে চারজনকে রাষ্ট্রপতি চূড়ান্ত করবেন।
 
তিনি আরো বলেন, ইসির নিজস্ব সচিবালয় গঠন করতে হবে এবং সচিবালয়ের আর্থিক স্বাধীনতা থাকতে হবে।
এছাড়া নির্বাচনের সময় ইসি প্রতিরক্ষা বাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা প্রদান করবে বলেও প্রস্তাব দেন তিনি।
 
বিএনপি চেয়াপারসন রাজনৈতিক দলের প্রতি আনুগত্য প্রকাশকারী নির্বাচন কমিশনের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের অতিসত্ত্বর প্রত্যাহারের দাবিও জানিয়েছেন।
 
সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়া বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে ‘বিতর্কিত’ আখ্যায়িত করে বলেন, নির্বাচনগুলোতে ভোট দিতে না পেরে জনগণ ‘ক্ষুব্ধ’।
 
তিনি বলেন, ‘সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ ও সষ্ঠু নির্বাচন’ জনগণ চায়, যেখানে তারা ‘নির্বিঘ্নে’ ভোট দিতে পারবেন এবং তার ফলাফল ‘কেউ বদলে দিতে পারবে না’।
 
আর এ জন‌্য একটি ‘স্বাধীন ও শক্তিশালী’ নির্বাচন কমিশন গঠনের ‘বিকল্প নেই’ বলেও মন্তব‌্য করেন তিনি। 

এ সম্পর্কিত আরও